কুসিক নির্বাচনে গোপন কক্ষে দু’জনকে দেখা যায়নি: ইসি

মেহেদী হাসান হাসিব, নিজস্ব প্রতিবেদক: কুমিল্লা সিটি করপোরেশন (কুসিক) নির্বাচনে গোপন কক্ষে দুজন ব্যক্তিকে উঁকি দিতে দেখা যায়নি বলে জানিয়েছেন সিসি ক্যামেরা পর্যবেক্ষণ কেন্দ্রের সমন্বয়ক ইসি’র আইডিইএ (২য় পর্যায়) প্রকল্পের উপ-প্রকল্প পরিচালক (কমিউনিকেশন) স্কোয়াড্রন লিডার মো. শাহরিয়ার আলম। বুধবার (১৫ জুন) রাজধানীর আগারগাঁওয়ে অবস্থিত নির্বাচন ভবনের ৪১৩ নম্বর কক্ষে সিসি ক্যামেরা পর্যবেক্ষণ কেন্দ্রে গণমাধ্যমকে এসব তথ্য জানান তিনি।

কন্ট্রোল রুম থেকে কিছু দেখতে পেয়েছেন কিনা সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নের জবাবে, মো. শাহরিয়ার আলম বলেন, সিসি ক্যামেরায় কাউকে গোপন কক্ষে উঁকি দিতে বা দুজনকে দেখা যায়নি। কুসিক নির্বাচনে দৈয়ারা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় মহিলা বুথে এক পোলিং কর্মকর্তাকে উঁকি দিতে দেখা গেছে। এছাড়া, কুমিল্লা নগরীর ৫নং ওয়ার্ডের কেন্দ্র রেয়াজ উদ্দিন সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় গোপন কক্ষে দুইজন একসাথে ভোট দিচ্ছে গণমাধ্যমে এমন সংবাদ প্রকাশিত হয়েছে।

স্কোয়াড্রন লিডার শাহরিয়ার আলম বলেন, সবগুলো গোপন কক্ষই আমরা সিসি ক্যামেরায় দেখতে পাচ্ছি। গোপন কক্ষে উঁকি দিচ্ছে এরকম আমরা দেখিনি। কেউ উঁকি দিলে সেটা আমরা দেখতে পেতাম। দেখলে অ্যাকশন নিতাম। মনিটরিং করে এখন পর্যন্ত আমরা অস্বাভাবিক কিছু পাইনি বলে জানান তিনি।

তিনি বলেন, অভিযোগ ছিল যে, ভোট কেন্দ্রের গোপন কক্ষে দুজন ব্যক্তি থাকে, তা এখন পর্যন্ত আমরা পাইনি। একটি অভিযোগ এসেছিল, আমরা খতিয়ে দেখেছি, সে ধরনের কিছু ছিল না।

ইসির সিসি ক্যামেরা পর্যবেক্ষণ কেন্দ্র থেকে ১৪ জুন সকাল ৬টায় পর্যবেক্ষণ শুরু হয়েছে। মনিটরের মাধ্যমে ভোটকেন্দ্রগুলোয় যা হচ্ছে তা তারা পর্যবেক্ষণ করছেন। ইসির মোট ৩০ জন কর্মকর্তা-কর্মচারী তাতে দায়িত্ব পালন করছেন। সবসময় পাঁচজনে ৮ ঘণ্টা করে এই দায়িত্ব পালন করছেন। আগামী ১৬ জুন সকাল ৬টা পর্যন্ত তারা এই পর্যবেক্ষণ করবেন।

উল্লেখ্য, কুমিল্লা সিটি করপোরেশনসহ দেশের আরও পাঁচ পৌরসভার ভোটে মোট ১ হাজার ৪৪০টি সিসি ক্যামেরা বসানো হয়েছে। এর মধ্যে কুসিক নির্বাচনে ৮৫০টি সিসি ক্যামেরা বসানো হয়েছে। বাকি ক্যামেরা পাঁচ পৌরসভায় বসানো হয়েছে।

আজ দেশের স্থানীয় সরকারের ১৮৯টি নির্বাচ অনুষ্ঠিত হচ্ছে। এর মধ্যে কুসিকে ভোট, একটি উপজেলায় সাধারণ নির্বাচন ও তিনটি উপজেলায় বিভিন্ন পদে উপ-নির্বাচন, পাঁচ পৌরসভায় সাধারণ ও একটি ওয়ার্ডে উপ-নির্বাচন, ১৩২টি ইউনিয়নে সাধারণ ও ৪৭টি ইউপিতে বিভিন্ন পদে উপ-নির্বাচনের ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে। এর মধ্যে কুসিক, ১৩২ ইউপি ও দুটি পৌরসভায় ভোটগ্রহণ হবে সম্পূর্ণ ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিনে (ইভিএম)।

About admin

Check Also

ঢাকা কলেজের সামনে পড়ে ছিল রক্তাক্ত মরদেহ

ঢাকা কলেজের সামনে পড়ে ছিল রক্তাক্ত মরদেহ

ঢাকা কলেজের সামনে থেকে একজনের রক্তাক্ত মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে।আজ মঙ্গলবার বিকেলে এই ঘটনা ঘটে। …