রবিবার , জানুয়ারী 29 2023

জয়া আহসান এর জীবনবৃত্তান্ত | Biography of Jaya Ahsan

জন্মঃ জয়া আহসান (বা জয়া মাসউদ) , (জন্মঃ ১লা জুলাই, ১৯৮৩) এক জন বাংলাদেশী মডেল ও অভিনেত্রী । মডেলিং ও টিভি নাটকের পাশাপাশি তিনি চলচ্চিত্রে অভিনয় করেও বেশ সুনাম অর্জন করেছেন। তিনি পশ্চিমবঙ্গের চলচ্চিত্রেও কাজ করেন। অভিনয়ের স্বীকৃতি হিসেবে তিনি চারটি জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার, ছয়টি মেরিল-প্রথম আলো পুরস্কার ও তিনটি ফিল্মফেয়ার পুরস্কার পূর্বসহ অসংখ্য পুরস্কার অর্জন করেছেন।

তার অভিনীত প্রথম চলচ্চিত্র ব্যাচেলর (২০০৪)। তিনি নাসির উদ্দীন ইউসুফ পরিচালিত সৈয়দ শামসুল হক’র নিষিদ্ধ লোবান উপন্যাস অবলম্বনে বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধের পটভূমিতে নির্মিত গেরিলা চলচ্চিত্রে বিলকিস বানু চরিত্রে এবং রেদওয়ান রনি পরিচালিত চোরাবালি চলচ্চিত্রে সাংবাদিক নবনী আফরোজ চরিত্রে অভিনয় করে টানা দুইবার শ্রেষ্ঠ অভিনেত্রী বিভাগে জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার লাভ করেন। এরপর তিনি অনিমেষ আইচ পরিচালিত জিরো ডিগ্রী (২০১৫) ও অনম বিশ্বাস পরিচালিত দেবী চলচ্চিত্রে অভিনয় করে শ্রেষ্ঠ অভিনেত্রী বিভাগে আরও দুইবার জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার পেয়েছেন।

জয়া আহসান প্রাথমিক জীবন: জয়া আহসান জন্মগ্রহণ করেন গোপালগঞ্জ জেলায়। তার বাবা মুক্তিযোদ্ধা এ এস মাসউদ এবং মা রেহানা মাসউদ ছিলেন একজন শিক্ষিকা। তারা দুই বোন এক ভাই। অভিনয় শুরুর আগে জয়া নাচ ও গানের প্রতি আকৃষ্ট ছিলেন। প্রাতিষ্ঠানিক লেখাপড়ার পাশাপাশি তিনি ছবি আঁকা শিখেছিলেন। তিনি একটি সংগীত স্কুলও পরিচালনা করেন। তিনি বাংলাদেশের মডেল ও অভিনেতা ফয়সাল আহসানের সহধর্মিনী ছিলেন। ১৪ মে ১৯৯৮ সালে তাঁরা বিয়ে করেন। তবে ২০১১ সালে ফয়সালের সঙ্গে জয়া বিবাহ-বিচ্ছেদ হয়। অভিনয়ের পাশাপাশি, বাংলাদেশে জয়ার একটি নিজের প্রযোজনা সংস্থাও রয়েছে, নাম ‘C-তে সিনেমা’। ২০১৮ সালে জয়ার প্রযোজনা সংস্থার তরফে প্রথম ছবি ‘দেবী’ মুক্তি পায়।

বয়স কত হলো জয়া আহসানের?: জয়া আহসান, প্রথম বাংলাদেশি ‘ফিল্ম ফেয়ার অ্যাওয়ার্ড’ পাওয়া ও জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারপ্রাপ্ত অভিনেত্রী। দুই বাংলার জনপ্রিয় এই অভিনেত্রীর আজ জন্মদিন। অনেকের মনে এখন প্রশ্ন জয়া আহসানের বয়স কত? জয়ার জন্ম ১৯৭২ সালের এই দিনে। এখন হয়তো অনেকেই বয়সের উত্তরটা পেয়ে যাবেন, জয়ার বয়স কত?

জয়ার নামের সঙ্গে নিত্যনতুন সাফল্যের পালক যুক্ত হচ্ছে। দেশে যেমন এই অভিনেত্রী জনপ্রিয়, পাশের দেশ ভারতেও কোনো অংশে কম না। ৪৭ বছরে পা রাখতে যাওয়া এ অভিনেত্রীর সৌন্দর্য, ফিগার আর অসাধারণ অভিনয়দক্ষতা শুধু ভক্ত-দর্শকদের কাছেই নয়; বাংলাদেশের চলচ্চিত্র, অভিনয় ও গানের জগতের অনেকের কাছেও ঈর্ষণীয়।

এদিকে জন্মদিনেও শিডিউল ফাঁকা নেই তার। কলকাতায় রয়েছেন একটি ছবির শুটিংয়ে। বিশেষ দিনটি নিয়ে তেমন কোন আয়োজন নেই বলে জানালেন জয়া। তবে আয়োজন না থাকলেও দুই বাংলা জনপ্রিয় এ অভিনেত্রীর বিশেষ দিনটিতে একেবারেই সাদামাটা যাবে না সেটা নিশ্চিত।

তবে জন্মদিন উপলক্ষে সবার কাছে দোয়া চেয়েছেন জয়া আহসান। ‘শুটিং থাকায় কলকাতায় আসতে হয়েছে। তাই বিগত বছরের মতো এবারও কলকাতাতেই জন্মদিন পালন করতে হচ্ছে। তবে সবার কাছে দোয়া চাই যেনো সুস্থ থেকে আরও ভালো ভালো কাজ উপহার দিতে পারি।’ বলেন ‘গেরিলা’র এ অভিনেত্রী। ২০১১ সালে জয়া নাসির উদ্দিন ইউসুফ পরিচালিত ‘গেরিলা’য় অভিনয়ের সুবাদে প্রথমবারের মতো জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার পান। এরপর রেদওয়ান রনির ‘চোরাবালি’ ও অনিমেষ আইচের ‘জিরো ডিগ্রী’ সিনেমাতে অভিনয়ের জন্য একই সম্মাননায় ভূষিত হন।

জয়া আহসান পূর্ণ জীবনী:

পুরো নাম :জয়া আহসান (বা জয়া মাসউদ)
ডাক নাম :জয়া
জন্মদিন :জন্মঃ ১লা জুলাই, ১৯৮৩)
এখন বয়স :৩৭ বছর (আপডেট- ২০২১)
বাবার নাম:মুক্তিযোদ্ধা এ এস মাসউদ
মায়ের নাম:রেহানা মাসউদ ছিলেন একজন শিক্ষিকা
জন্মস্থান:গোপালগঞ্জ জেলায়
জাতীয়তা :বাংলাদেশী
পেশা :অভিনেত্রী ও মডেল
সক্রিয় বছর :১৯৮৩ -বর্তমান
রাশিচক্র:কন্যা
উচ্চতা :ইঞ্চিতে- ৫’ ৪” ইঞ্চি
ওজন :৫০ কেজি
নিতম্বের সাইজ:৩৫  ইঞ্চি
কোমরের মাপ:২৪ ইঞ্চি
স্তন সাইজ:৩৫  ইঞ্চি
ব্রা সাইজ:৩৪ ইঞ্চি
শরীরের পরিমাপ:৩৫-২৪-৩৫-৩৪
দৈহিক আকৃতি:ত্রিভুজ
জুতার মাপ:১২
চুলের রঙ:কালো
চোখের রঙ:কালো
বৈবাহিক অবস্থা:বিবাহিত
স্বামীর নাম:ফয়সাল
বিয়ের তারিখ:২০১১
সন্তান :না
ধর্ম:ইসলাম
ফোন নম্বর:প্রকাশিত হয়নি
প্রিয় খাবার:মাছ ,মটর, চকলেট
প্রিয় অভিনেতা:অমিতাভ বচ্চন
প্রিয় রং:লাল, হলুদ, কালো,
প্রিয় খেলা:ক্রিকেট
প্রিয় ক্রিকেটার:সাকিব আল হাসান
প্রিয় গন্তব্য:সিঙ্গাপুর,থাইল্যান্ড

জয়া আহসান চলচ্চিত্রের তালিকা:

বছর
চলচ্চিত্রচরিত্রপরিচালকদেশ
২০০৪ব্যাচেলরশায়লামোস্তফা সরয়ার ফারুকীবাংলাদেশ
২০১০ডুবসাঁতাররেণুকা রহমাননুরুল আলম আতিকবাংলাদেশ
২০১১ফিরে এসো বেহুলাতনিমাতানিম নূরবাংলাদেশ
২০১১গেরিলাবিলকিস বানুনাসির উদ্দীন ইউসুফবাংলাদেশ
২০১২চোরাবালিনবনী আফরোজরেদওয়ান রনিবাংলাদেশ
২০১৩আবর্ত(চলচ্চিত্র)চারু সেনঅরিন্দম শীলভারত
২০১৩পূর্ণদৈর্ঘ্য প্রেম কাহিনীজারা শিকদারসাফি উদ্দিন সাফিবাংলাদেশ
২০১৫জিরো ডিগ্রীসোনিয়াঅনিমেষ আইচবাংলাদেশ
২০১৫একটি বাঙালি ভূতের গপ্পোঅমৃতাইন্দ্রনীল রায় চৌধুরীভারত
২০১৫রাজকাহিনীরুবিনাসৃজিত মুখোপাধ্যায়ভারত
২০১৬রুবিনাসৃজিত মুখোপাধ্যায়সাফি উদ্দিন সাফিবাংলাদেশ
২০১৬পূর্ণদৈর্ঘ্য প্রেম কাহিনি ২মিতুসাফি উদ্দিন সাফিবাংলাদেশ
২০১৬ঈগলের চোখশিবাঙ্গীঅরিন্দম শীলভারত
২০১৭ভালোবাসার শহরইন্দ্রনীল রায় চৌধুরীভারত
২০১৭বিসর্জনপদ্মা হালদারকৌশিক গাঙ্গুলীভারত
২০১৭খাঁচাসরোজিনীআকরাম খানবাংলাদেশ
২০১৮পুত্রসাইফুল ইসলাম মান্নুবাংলাদেশ
২০১৮সক্রসবিরসা দাশগুপ্তভারত
২০১৮দেবীরানুঅনম বিশ্বাসবাংলাদেশ
২০১৮বিজয়াকৌশিক গাঙ্গুলীভারত
২০১৮কণ্ঠরমিলানন্দিতা রায়, শিবপ্রসাদ মুখার্জিভারত
২০২১অলাতচক্রতায়েবাহাবিবুর রহমানবাংলাদেশ
২০২১উটি সার্কাসবিউটিমাহমুদ দিদারবাংলাদেশ
২০২১মেসিডোনাসামুরাই মারুফবাংলাদেশ

পুরস্কার ও মনোনয়ন

বছরচলচ্চিত্রপুরস্কারের শিরোনামবিভাগফলাফল
২০১২গেরিলা (২০১১)আন্তর্জাতিক বাংলা চলচ্চিত্র সমালোচক পুরস্কারশ্রেষ্ঠ অভিনেত্রীবিজয়ী
২০১৭বিসর্জন (২০১৬)আন্তর্জাতিক বাংলা চলচ্চিত্র পুরস্কার (আইবিএফএ)শ্রেষ্ঠ অভিনেত্রীবিজয়ী
২০১২গেরিলা (২০১১)চ্যানেল আই পারফরমেন্স অ্যাওয়ার্ডসশ্রেষ্ঠ চলচ্চিত্র অভিনেত্রীবিজয়ী
২০১২চৈতাপাগল (২০১১)চ্যানেল আই পারফরমেন্স অ্যাওয়ার্ডসশ্রেষ্ঠ চলচ্চিত্র অভিনেত্রীবিজয়ী
২০০৯অন্তরীক্ষ (২০০৮)চারুনীড়ম পুরস্কারশ্রেষ্ঠ টিভি অভিনেত্রীবিজয়ী
২০১০মায়েশা (২০০৯)চারুনীড়ম পুরস্কারশ্রেষ্ঠ টিভি অভিনেত্রীবিজয়ী
২০১১মায়া ও মৃত্যুর গল্প (২০১০)চারুনীড়ম পুরস্কারশ্রেষ্ঠ টিভি অভিনেত্রীবিজয়ী
২০১৩গেরিলা (২০১১)জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারশ্রেষ্ঠ অভিনেত্রীবিজয়ী
২০১৪চোরাবালি (২০১২)জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারশ্রেষ্ঠ অভিনেত্রীবিজয়ী
২০১৭জিরো ডিগ্রী (২০১৫)জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারশ্রেষ্ঠ অভিনেত্রীবিজয়ী
২০১৯দেবী (২০১৮)জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারশ্রেষ্ঠ অভিনেত্রীবিজয়ী
২০১৭বিসর্জন (২০১৬)জি সিনে পুরস্কারশ্রেষ্ঠ অভিনেত্রীবিজয়ী
২০১৬রাজকাহিনী (২০১৫)টেলি সিনে পুরস্কারশ্রেষ্ঠ পার্শ্ব অভিনেত্রীবিজয়ী
২০১২গেরিলা (২০১১)ঢাকা আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবশ্রেষ্ঠ অভিনেত্রী (জুরি পুরস্কার)বিজয়ী
২০১৪আবর্ত (২০১৩)ফিল্মফেয়ার পুরস্কার, পূর্বশ্রেষ্ঠ নবীন অভিনেত্রীবিজয়ী
২০১৭ঈগলের চোখ (২০১৬)ফিল্মফেয়ার পুরস্কার, পূর্বশ্রেষ্ঠ অভিনেত্রীমনোনীত
২০১৮বিসর্জন (২০১৭)ফিল্মফেয়ার পুরস্কার, পূর্বশ্রেষ্ঠ অভিনেত্রীবিজয়ী
২০২১বিজয়া (২০১৮) ও রবিবার (২০১৯)ফিল্মফেয়ার পুরস্কার, পূর্বশ্রেষ্ঠ অভিনেত্রী (সমালোচক)বিজয়ী
২০১৮বিসর্জন (২০১৬)বঙ্গ চলচ্চিত্র সাংবাদিক সমিতি পুরস্কারশ্রেষ্ঠ অভিনেত্রীবিজয়ী
২০১৪গেরিলা (২০১১)বাংলাদেশ চলচ্চিত্র সাংবাদিক সমিতি পুরস্কারশ্রেষ্ঠ অভিনেত্রীবিজয়ী
২০১৯দেবী (২০১৮)বাংলাদেশ চলচ্চিত্র সাংবাদিক সমিতি পুরস্কারশ্রেষ্ঠ অভিনেত্রীবিজয়ী
২০১৯দেবী (২০১৮)ভারত-বাংলাদেশ চলচ্চিত্র পুরস্কারশ্রেষ্ঠ অভিনেত্রীবিজয়ী
২০২০রবিবার (২০১৯)মাদ্রিদ আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসববিদেশি ভাষার চলচ্চিত্রে শ্রেষ্ঠ অভিনেত্রীবিজয়ী
২০০৬এনেছি সূর্যের হাঁসি (২০০৫)মেরিল-প্রথম আলো পুরস্কারশ্রেষ্ঠ টিভি অভিনেত্রীমনোনীত
২০০৭এনেছি সূর্যের হাঁসি (২০০৬)মেরিল-প্রথম আলো পুরস্কারশ্রেষ্ঠ টিভি অভিনেত্রীমনোনীত
২০০৮শঙ্খবাস (২০০৭)মেরিল-প্রথম আলো পুরস্কারশ্রেষ্ঠ টিভি অভিনেত্রীমনোনীত
২০১০তারপরও আঙুরলতা নন্দকে ভালবাসে (২০০৯)মেরিল-প্রথম আলো পুরস্কারশ্রেষ্ঠ টিভি অভিনেত্রীমনোনীত
২০১১চৈতা পাগল (২০১০)মেরিল-প্রথম আলো পুরস্কারশ্রেষ্ঠ টিভি অভিনেত্রীবিজয়ী
২০১২চৈতা পাগল (২০১১)মেরিল-প্রথম আলো পুরস্কারশ্রেষ্ঠ টিভি অভিনেত্রীমনোনীত
২০১৩গেরিলা (২০১১)মেরিল-প্রথম আলো পুরস্কারশ্রেষ্ঠ চলচ্চিত্র অভিনেত্রীবিজয়ী
২০১৪চোরাবালি (২০১২)মেরিল-প্রথম আলো পুরস্কারশ্রেষ্ঠ চলচ্চিত্র অভিনেত্রীমনোনীত
২০১৭আমাদের গল্প (২০১২)মেরিল-প্রথম আলো পুরস্কারশ্রেষ্ঠ টিভি অভিনেত্রীবিজয়ী
২০১৯পূর্ণদৈর্ঘ্য প্রেম কাহিনী (২০১৩)মেরিল-প্রথম আলো পুরস্কারশ্রেষ্ঠ চলচ্চিত্র অভিনেত্রীমনোনীত
২০০৭পূর্ণদৈর্ঘ্য প্রেম কাহিনি ২ (২০১৬)মেরিল-প্রথম আলো পুরস্কারশ্রেষ্ঠ চলচ্চিত্র অভিনেত্রীবিজয়ী
২০০৮দেবী (২০১৮)মেরিল-প্রথম আলো পুরস্কারশ্রেষ্ঠ চলচ্চিত্র অভিনেত্রীমনোনীত
২০১০হাটকুঁড়া (২০০৬)মেরিল-প্রথম আলো পুরস্কারশ্রেষ্ঠ টিভি অভিনেত্রীমনোনীত
২০১২স্ক্রিপ্টরাইটার (২০০৭)মেরিল-প্রথম আলো পুরস্কারশ্রেষ্ঠ টিভি অভিনেত্রীবিজয়ী
২০১৩টাইপরাইটার (২০০৯)মেরিল-প্রথম আলো পুরস্কারশ্রেষ্ঠ টিভি অভিনেত্রীমনোনীত
২০১৬কয়েকটি নীল রঙের পেন্সিল (২০১১)মেরিল-প্রথম আলো পুরস্কারশ্রেষ্ঠ টিভি অভিনেত্রীমনোনীত
২০১৯গেরিলা (২০১১)মেরিল-প্রথম আলো পুরস্কারশ্রেষ্ঠ চলচ্চিত্র অভিনেত্রীমনোনীত
আমাদের গল্প (২০১২)মেরিল-প্রথম আলো পুরস্কারশ্রেষ্ঠ টিভি অভিনেত্রীবিজয়ী
জিরো ডিগ্রী (২০১৫)মেরিল-প্রথম আলো পুরস্কারশ্রেষ্ঠ চলচ্চিত্র অভিনেত্রীমনোনীত
২০১৯দেবী (২০১৮)মেরিল-প্রথম আলো পুরস্কারশ্রেষ্ঠ চলচ্চিত্র অভিনেত্রীমনোনীত
২০১৯ গেরিলা (২০১১)মেরিল-প্রথম আলো পুরস্কারশ্রেষ্ঠ চলচ্চিত্র অভিনেত্রীবিজয়ী
২০০৯অন্তরীক্ষ (২০০৮)সিজেএফবি পারফরমেন্স অ্যাওয়ার্ডসশ্রেষ্ঠ টিভি অভিনেত্রীবিজয়ী
২০১০পাঞ্জাবীওয়ালা (২০০৯)সিজেএফবি পারফরমেন্স অ্যাওয়ার্ডসশ্রেষ্ঠ টিভি অভিনেত্রীবিজয়ী

ধারাবাহিক:

  1. এনেছি সূর্যের হাঁসি
  2. শঙ্খবাস
  3. আমাদের ছোট নদী
  4. কফি হাউজ
  5. দরজার ওপাশে
  6. লাবণ্য প্রভা
  7. মনে মনে
  8. মানুষ বদল
  9. নীড়
  10. পলায়ন পর্ব
  11. ৬৯
  12. সংশয়
  13. সম্পর্কের গল্প
  14. তেভাগা
  15. চৈতা পাগল

এক পর্বের নাটক:

  1. হাটকুঁড়া
  2. জাল
  3. জননীর কান্না
  4. কুহক
  5. পাঞ্জাবীওয়ালা
  6. মায়েশা
  7. আমেরিকানা
  8. গ্রহণকাল
  9. হ্যালোউইন
  10. নো ম্যানস ল্যান্ড
  11. অফ বীট
  12. তারপরেও আঙুরলতা নন্দকে ভালবাসে
  13. বিকল পাখির গান
  14. আমাদের গল্প
  15. সাম্বালা
  16. ভালোবাসি তাই ভালোবেসে যাই

বিস্তরিত ভিডিও থেকে ও জানতে পারবেন: 

জয়া আহসান কর্মজীবন

জয়ার চলচ্চিত্রে অভিষেক হয় ২০০৪ সালে মোস্তফা সরয়ার ফারুকীর ব্যাচেলর চলচ্চিত্রের মাধ্যমে। পরে দীর্ঘ ৬ বছর পর নুরুল আলম আতিক পরিচালিত ডুবসাঁতার চলচ্চিত্রে অভিনয় করেন। ২০১১ সালে তানিম নূর পরিচালিত ফিরে এসো বেহুলা এবং নাসির উদ্দীন ইউসুফ পরিচালিত গেরিলা চলচ্চিত্রে অভিনয় করেন। গেরিলায় বিলকিস বানু চরিত্রে অভিনয় করে তিনি ২০১২ সালে অনুষ্ঠিত ঢাকা আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসব-এ জুরিদের বিচারে শ্রেষ্ঠ অভিনেত্রীর পুরস্কার অর্জন করেন। একই বছর প্রদত্ত মেরিল-প্রথম আলো পুরস্কার-এ সমালোচকদের বিচারে শ্রেষ্ঠ নারী চলচ্চিত্র অভিনয়শিল্পী বিভাগে পুরস্কার অর্জন করেন। ২০১৩ সালে প্রদত্ত জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার-এ শ্রেষ্ঠ অভিনেত্রী বিভাগে পুরস্কার অর্জন করেন। এছাড়া ২০১৪ সালে প্রদত্ত বাচসাস পুরস্কার-এ শ্রেষ্ঠ চলচ্চিত্র অভিনেত্রী বিভাগে পুরস্কার অর্জন করেন।

গেরিলা চলচ্চিত্রের সাফল্যের পর থেকে তিনি নিয়মিত বাংলাদেশ ও ভারতের কলকাতার চলচ্চিত্রে কাজ করা শুরু করেন। ২০১২ সালে রেদওয়ান রনি পরিচালিত চোরাবালিতে একজন সাংবাদিকের চরিত্রে অভিনয় করেন। এতে তার বিপরীতে অভিনয় করেন কলকাতার ইন্দ্রনীল সেনগুপ্ত। এই চলচ্চিত্রে অভিনয়ের জন্য ২০১৩ সালে প্রদত্ত মেরিল-প্রথম আলো পুরস্কার-এ তারকা জরিপে শ্রেষ্ঠ নারী চলচ্চিত্র অভিনয়শিল্পী বিভাগে পুরস্কার অর্জন করেন। এছাড়া তিনি টানা দ্বিতীয়বারের মত শ্রেষ্ঠ অভিনেত্রী বিভাগে জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার লাভ করেন।

জয়া আহসান ২০১৩ সালে কান চলচ্চিত্র উৎসব থেকে নিমন্ত্রণ পান। এই বছর তিনি অভিনয় করেন কলকাতার অরিন্দম শীল পরিচালিত আবর্ত ছায়াছবিতে। এতে তার বিপরীতে অভিনয় করেন আবীর চ্যাটার্জি। এই চলচ্চিত্রে অভিনয়ের জন্য তিনি ফিল্মফেয়ার পুরস্কার পূর্বে শ্রেষ্ঠ নবীন অভিনেত্রী হিসেবে মনোনয়ন পান। একই বছর বাংলাদেশের সাফি উদ্দিন সাফি পরিচালিত রোমান্টিক ছায়াছবি পূর্ণদৈর্ঘ্য প্রেম কাহিনীতে অভিনয় করেন। এতে প্রথমবারের মত বিপরীতে অভিনয় করেন শাকিব খান। ছায়াছবিটি ঈদুল আযহায় মুক্তি পায় এবং ব্যবসাসফল হয়। এই চলচ্চিত্রে অভিনয়ের জন্য তিনি ২০১৪ সালে প্রদত্ত মেরিল-প্রথম আলো পুরস্কার-এ টানা দ্বিতীয়বারের মত তারকা জরিপে শ্রেষ্ঠ নারী চলচ্চিত্র অভিনয়শিল্পী বিভাগে পুরস্কার লাভ করেন। ২০১৪ সালে মারুফ হাসান পরিচালিত পারলে ঠেকা চলচ্চিত্রে অভিনয় করেন কিন্তু ছায়াছবিটি এখনো মুক্তি পায় নি।

২০১৫ সালে অভিনয় করেন বাংলাদেশের অনিমেষ আইচ পরিচালিত মনস্তাত্ত্বিক-থ্রিলারধর্মী জিরো ডিগ্রী ছবিতে। এতে তার বিপরীতে অভিনয় করেন মাহফুজ আহমেদ। চলচ্চিত্রটি ব্যবসাসফল না হলেও জয়ার অভিনয় প্রশংসিত হয় এবং তিনি মেরিল-প্রথম আলো পুরস্কার-এ সমালোচকদের বিচারে শ্রেষ্ঠ নারী চলচ্চিত্র অভিনয়শিল্পী বিভাগে মনোনীত হন এবং ২০১৭ সালে প্রদত্ত ৪০তম জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারে শ্রেষ্ঠ অভিনেত্রীর পুরস্কার লাভ করেন। একই বছর কলকাতার ইন্দ্রনীল রায় চৌধুরী পরিচালিত একটি বাঙালি ভূতের গপ্পো ও সৃজিত মুখোপাধ্যায় পরিচালিত ১৯৪৭ সালের দেশবিভাগ নিয়ে নির্মিত রাজকাহিনী ছবিতে অভিনয় করেন। এই চলচ্চিত্রে যৌবনাশ্রিত ও আপত্তিকর দৃশ্যে অভিনয় করে তিনি সমালোচিত হয়েছেন। রাজকাহিনী ছায়াছবিতে অভিনয়ের জন্য ১৬তম টেলি সিনে পুরস্কারে শ্রেষ্ঠ পার্শ্বচরিত্রে অভিনেত্রীর পুরস্কার অর্জন করেন।

২০১৬ সালে মুক্তি পায় সাফি উদ্দিন সাফি পরিচালিত পূর্ণদৈর্ঘ্য প্রেম কাহিনি ২। এটি ২০১৩ সালে মুক্তিপ্রাপ্ত পূর্ণদৈর্ঘ্য প্রেম কাহিনীর সিক্যুয়াল। এতে অভিনয়ের জন্য তিনি চতুর্থবারের মত শ্রেষ্ঠ চলচ্চিত্র অভিনেত্রী বিভাগে মেরিল-প্রথম আলো পুরস্কারের মনোনয়ন লাভ করেন। এই বছর আরো অভিনয় করেছেন শীর্ষেন্দু মুখোপাধ্যায় রচিত জনপ্রিয় গোয়েন্দা চরিত্র শবর দাশগুপ্তর ওপর লেখা উপন্যাসের ভিত্তিতে অরিন্দম শীল পরিচালিত ঈগলের চোখ-এ। ২০১৮ সালের জানুয়ারিতে মুক্তি পায় তার অভিনীত পুত্র। সাইফুল ইসলাম মান্নু পরিচালিত এই ছবিতে একজন অটিস্টিক শিশুর মায়ের ভূমিকায় অভিনয় করেন। আগস্ট মাসে বিরসা দাশগুপ্ত পরিচালিত নারীবাদী চলচ্চিত্র ক্রিসক্রস মুক্তি পায়। ছবিটিতে তিনি কর্মজীবনে সফল, কিন্তু ব্যক্তিগত জীবনে একা এক নারীর চরিত্রে অভিনয় করেন।

কি: জয়া আহসান উচ্চতা, জয়া আহসান বিয়ে, জয়া আহসানের প্রথম বিজ্ঞাপন, জয়া আহসান শিক্ষাগত যোগ্যতা, ফয়সাল আহসান উইকিপিডিয়া, জয়া আহসান ফয়সাল আহসান, মডেল ফয়সাল আহসান, জয়া আহসানের জন্ম তারিখ, জয়া আহসান এর বিয়ে, জয়া আহসান বয়স, জয়া আহসান উচ্চতা, জয়া আহসান শিক্ষাগত যোগ্যতা, জয়া আহসানের ছবি, ফয়সাল আহসান উইকিপিডিয়া, জয়া আহসানের প্রথম বিজ্ঞাপন, জয়া আহসান ফয়সাল আহসান

Check Also

স্ত্রীর জন্য জন্মদাতা মা কেও বাসায় ঢুকতে দিতে পারেনি আরজে কিবরিয়া!

“এবার কক্সবাজার বেড়াতে গিয়ে স্ত্রীর বিরুদ্ধে সাধারণ ডায়েরি করেছেন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে জনপ্রিয় আরজে কিবরিয়া। …