রবিবার , জানুয়ারী 29 2023

দাঁড়িয়ে প্রস্রাব করলে পুরুষের যেসব ক্ষতি হয়!

দাঁড়িয়ে প্রস্রাব করা ক্ষতিকর কেন? বিজ্ঞান কি বলে? চিকিৎসা বিজ্ঞানের গবেষণায় দাঁড়িয়ে প্রস্রাব করলে পুরুষের যে সব মারাত্মক ক্ষতি হয়: (১) দাঁড়িয়ে প্রস্রাব করলে পেটের উপর কোন চাপ পড়ে না। ফলে দূষিত বায়ু বের হতে পারে না। বরং

তা উপর দিকে উঠে যায়। ফলে অস্থিরতা বাড়ে, র’ক্ত চাপ বাড়ে, হৃদযন্ত্রে স্পন্দন বাড়ে, খাদ্যনালী দিয়ে বার বার হিক্কা আসতে থাকে। (২) দাঁড়িয়ে প্রস্রাব করলে প্রস্রাবের থলি সরু ও লম্বা হয়ে ঝুলতে থাকে ফলে প্রস্রাবের দূষিত পদার্থগুলো থলির নিচে গিয়ে জমা হয়। অথচ বসে প্রস্রাব করলে প্রস্রাবের থলিতে চাপ লাগে ফলে সহজেই ওসব দূষিত পদার্থ বের হয়ে যায়। (৩) দাঁড়িয়ে প্রস্রাব করলে

কিডনিতে অতি সহজে পাথর সৃষ্টি হয়। (৪) দীর্ঘদিন দাঁড়িয়ে প্রস্রাব করলে প্রস্রাবের বেগ কমতে থাকে। (৫) যারা নিয়মিত দাড়িয়ে প্রস্রাব করেন তাদের অবশ্যই শেষ জীবনে ডায়াবেটিস, জন্ডিস, কিডনী রোগ হবেই। (৬) দাঁড়িয়ে প্রস্রাব করলে পুরুষের যৌ’ন শ’ক্তি কমতে থাকে এবং পুরুষাঙ্গ নরম ও তেনা তেনা হয়ে যায় এবং সহজে সোজা ও শক্ত হতে চায় না। উত্তেজনার সময় যদিও শক্ত হয়

কিছুক্ষন পর কিছু বের না হতেই তা আবার ছোট ও নরম হয়ে যায়। (৭) দাঁড়িয়ে প্রস্রাব করলে পরিবেশ দূষিত হয়। সেই দূষিত বায়ু আমাদের দেহে প্রবেশ করে বিভিন্ন জটিল রোগের সৃষ্টি করে। (৮) দাঁড়িয়ে প্রস্রাব করলে তার ছিটা দেহে ও কাপড়ে লাগে ফলে তা দুর্গন্ধের সৃষ্টি করে। স্বাস্থ্য বিজ্ঞান বলে উপরোক্ত দৈহিক সমস্যা থেকে রক্ষা পাওয়ার জন্য আমাদের অতি অবশ্যই বসে প্রস্রাব করা উচিত।

Check Also

একজন মানুষ সুস্থ থাকার জন্য, বিয়ে করা কতটুকু জরুরী এখনি জেনে নিন

বিয়ে শুধু একটি সামাজিক ব’ন্ধনই না। সু’স্থ থাকতেও বিয়ের রয়েছে প্রয়োজনীয়তা। স’ম্প্রতি স্বা’স্থ্যবিষয়ক একটি ওয়েবসাইটের …