অর্থের বিনিময়ে এবার ফেসবুক-ইনস্টাগ্রামের ব্লু ব্যাজ

টুইটার, স্ন্যাপচ্যাট ও টেলিগ্রামের পর অর্থের বিনিময়ে এবার ফেসবুক ও ইনস্টাগ্রাম ব্যবহারকারীদের অ্যাকাউন্ট ভেরিফায়েড চালু করলো সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম জায়ান্ট কোম্পানি মেটা। যুক্তরাষ্ট্রের ব্যবহারকারীরা তাদের অ্যাকাউন্টের পাশে লোভনীয় ব্লু ব্যাজ অর্থের বিনিময়ে যুক্ত করতে পারছেন। শনিবার (১৮ মার্চ) মার্কিন সংবাদমাধ্যম সিএনএন বিজনেসের এক প্রতিবেদনে এই তথ্য জানানো হয়েছে।

গত ১৯ ফেব্রুয়ারি ফেসবুকে নিজের ভেরিফায়েড অ্যাকাউন্টে দেওয়া ঘোষণায় মেটার প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও) মার্ক জাকারবার্গ অর্থের বিনিময়ে ফেসবুক ও ইনস্টাগ্রাম অ্যাকাউন্ট ভেরিফায়েড করা যাবে বলে জানান। তার ঘোষণা অনুযায়ী, মাসিক নির্দিষ্ট একটি অংকের অর্থের বিনিময়ে ফেসবুক ও ইনস্টাগ্রাম প্রোফাইলের নামের পাশে ব্লু ব্যাজ চিহ্ন পাবেন ব্যবহারকারীরা।

শুক্রবার (১৭ মার্চ) থেকে মেটা দু’টি সামাজিক নেটওয়ার্কের মার্কিন ব্যবহারকারীদের জন্য পেইড ভেরিফায়েড কর্মসূচি পরীক্ষামূলক শুরু করেছে। প্রতিষ্ঠানটির সিইও মার্ক জাকারবার্গ ইনস্টাগ্রামে এক ঘোষণায় এই তথ্য নিশ্চিত করেছেন। কোম্পানিটি আগামী কয়েক সপ্তাহের মধ্যে আরও বেশিসংখ্যক মার্কিন ব্যবহারকারীর জন্য এই কর্মসূচি উন্মুক্ত করার পরিকল্পনা করেছে।

এর আগে, গত ফেব্রুয়ারিতে অস্ট্রেলিয়া এবং নিউজিল্যান্ডে প্রথম পরীক্ষামূলক এই কর্মসূচি শুরু করা হয়েছিলো। ওই সময় ওয়েবে মেটা ভেরিফায়েড মাসে ১১ দশমিক ৯৯ ডলার আর আইওএসে ১৪ দশমিক ৯৯ ডলারের বিনিময়ে শুরু হয়।

মেটা ভেরিফায়েড সাবস্ক্রিপশন নামের চালু করা এই সেবার আওতায় জাতীয় পরিচয়পত্র দিয়ে অ্যাকাউন্ট যাচাই, ব্লু ব্যাজ, অতিরিক্ত সুরক্ষাসহ সরাসরি গ্রাহক সহায়তা সুবিধা পাওয়া যাবে। যেসব অ্যাকাউন্ট ছদ্মবেশে অন্যের নামে ব্যবহার করা হয়, তাদের বিরুদ্ধে অতিরিক্ত সুরক্ষাও মিলবে এই গ্রাহক সেবায়।

এলন মাস্কের মালিকানাধীন টুইটার মাসে ১১ ডলারের বিনিময়ে ব্লু টিক মিলবে বলে গত ডিসেম্বরে ঘোষণা দিয়েছিলো। তাদের এই ঘোষণার পর একই ধরনের সাবস্ক্রিপশন পরিষেবা চালু করলো ফেসবুক।

এর আগে, গত বছর রাজস্ব বৃদ্ধির নতুন উৎস হিসাবে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম স্ন্যাপচ্যাট এবং বার্তা আদানপ্রদানের অ্যাপ টেলিগ্রাম পেইড সাবস্ক্রিপশন পরিষেবা চালু করে।

১২০০ টাকায় কেনা যাবে ফেসবুকের ব্লু ব্যাজ

ব্যবহারকারীদের কাছে এবার অর্থের বিনিময়ে ‘ব্লু ব্যাজ’ বিক্রির সিদ্ধান্ত নিয়েছে বিশ্বের শীর্ষ সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুক। এর ফলে ডলার খরচ করে কেনা যাবে ফেসবুক ভেরিফায়েড সেবা। এ জন্য প্রতিমাসে ওয়েব প্ল্যাটফর্মে গুণতে হবে ১১ দশমিক ৯৯ মার্কিন ডলার এবং আইওএস প্ল্যাটফর্মের জন্য খরচ হবে ১৪ দশমিক ৯৯ মার্কিন ডলার।

চলতি সপ্তাহ এ সেবা অস্ট্রেলিয়া ও নিউজিল্যান্ডের জন্য চালু করবে ফেসবুক। তবে বিশ্বের অন্যান্য দেশেও শিগগিরই এ সেবা চালু কথা জানিয়েছে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমটি।

আজ রোববার ফেসবুকে প্রতিষ্ঠানটির সহপ্রতিষ্ঠাতা মার্ক জুকারবার্গ লেখেন, সরকারি সংস্থার দেওয়া পরিচয়পত্র দিয়ে ব্লু ব্যাজ নেওয়া যাবে। এর ফলে ব্যবহারকারীর পরিচয় নকল করে আর কোনো ভুয়া অ্যাকাউন্ট থাকলেও সেই ব্যবহারকারী ফেসবুকে নিজের সঠিক পরিচয়ের অ্যাকাউন্টটি তার জন্য সহায়ক হবে। এ সেবা যারা নেবেন তারা ফেসবুকের গ্রাহক সহায়তা কেন্দ্র থেকে সরাসরি সেবা পাবেন।

এর আগে গেল বছরের শেষ দিকে টুইটার কিনে নেওয়ার পর একইভাবে টুইটারের ভেরিফিকেশন টুলস ‘ব্লু টিক’ বিক্রির ঘোষণা দেন ইলন মাস্ক। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে অ্যাকাউন্ট ভেরিফায়েড থাকা বা আইডির নামের পাশে ভেরিফায়েড চিহ্নের উপস্থিতি ব্যবহারকারীদের মাঝে বিশেষ গুরুত্ব পায়।

ফেসবুক অর্থের বিনিময়ে ভেরিফাই করার উপায়

নির্দিষ্ট অর্থের বিনিময়ে মেটার মালিকানাধীন ফেসবুক-ইনস্টাগ্রামে ব্ল টিক পাওয়ার সুযোগ চালু হয়েছে।

চলতি বছর ফেব্রুয়ারি মাসে ভেরিফায়েড পরিষেবা চালু করে ফেসবুকের পেরেন্ট প্রতিষ্ঠান মেটা। অনেকটা গত বছর টুইটার সাবস্ক্রিপশন মডেলের মতো। যেখানে ইউজার একটা নির্দিষ্ট অর্থ দিলেই তার বিনিময়ে পাওয়া যায় ভেরিফায়েড স্ট্যাটাস সঙ্গে ব্লু টিক।

মেটার এই পরিষেবা প্রথম অস্ট্রেলিয়া এবং নিউজিল্যান্ডে চালু করা হয়। দাম রাখা হয় প্রতি মাসে ১১ ডলার। এরপর লঞ্চ হয় মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে। চলতি মাসেই ভেরিফায়ড পরিষেবা চালু হয়েছে আমেরিকাতে। এখন ভারতে এই সেবা চালু হয়েছে। বাংলাদেশে কবে এই পরিষেবা চালু হবে সে সম্পর্কে জানায়নি মেটা।

কীভাবে পাওয়া যাবে ব্লু টিক?

আপাতত এই পরিষেবার জন্য ওয়েটিং লিস্ট চালু করেছে মেটা। মেটা ভেরিফায়েড হওয়ার জন্য ইউজারদের বৈধ সরকারি পরিচয় পত্র জমা কতে হবে। তারপর আপনি যেই বিভাগে ব্লু টিক পেতে চান অর্থাৎ মোবাইল নাকি ওয়েব সেটি সিলেক্ট করতে হবে। প্রতি মাসে নির্ধারিত অংক জমা করলেই পাওয়া যাবে মেটা ভেরিফায়েড ব্লু টিক। অনেকদিন আগেই টাকার বিনিময়ে ব্লু টিক পরিষেবা চালু করেছে মাইক্রো ব্লগিং প্ল্যাটফর্ম টুইটার।

মেটা ভেরিফায়েড ব্লু টিকের সুবিধা

এই পরিষেবার অধীনে শুধু ব্লু টিক পাবেন না ইউজার, তার সঙ্গে জুড়বে অতিরিক্ত সুরক্ষা স্তর। পাওয়া যাবে কাস্টমার সাপোর্ট, বাড়ানো যাবে অ্যাকাউন্টের এনগেজমেন্ট। এই মুহূর্তে মেটা ভেরিফায়েড ১৮ বছরের ঊর্ধ্বে থাকা ব্যক্তিগত প্রোফাইলের জন্য চালু করা হয়েছে। আগামীদিনে বিজনেস এবং ১৮ বছরের নিচে থাকা প্রোফাইলের জন্য ভেরিফায়েড পরিষেবা চালু হবে কিনা সে বিষয়ে এখনও কিছু জানায়নি মেটা।

মেটা ভেরিফায়েড ওয়েটলিস্ট এ জয়েন করে আপাতত নিজের নাম ও অন্যান্য তথ্য নথিভুক্ত করে রাখতে পারেন। ওয়েটলিস্টে জয়েন করার জন্য মেটার অফিশিয়াল ওয়েবসাইটেও ভিজিট করতে পারেন।

About admin

আমার পোস্ট নিয়ে কোন প্রকার প্রশ্ন বা মতামত থাকলে কমেন্ট করে জানাতে পারেন অথরা মেইল করতে পারেন admin@sottotv.com এই ঠিকানায়।