সবসময় পাঁচ ওয়াক্ত নামাজ এবং কোরআন শরীফ পড়ি, আল্লাহকে ডাকি: রুবেল

চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির নির্বাচন (Election of artist association) নিয়ে বেশ কয়েক দিন ধরে নানা আলোচনা-সমালোচনা বিরাজ করছে। ২৮ জানুরারি অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে এই নির্বাচন। এই নির্বাচনে অনেক তারকারাই অংশগ্রহন করেছেন। ঢাকাই চলচ্চিত্রের জনপ্রিয় অভিনেতা রুবেল (Actor Rubel) সম্প্রতি এই নির্বাচনকে ঘিরে বেশ কিছু কথা বললেন।

নায়ক রুবেল বাংলা ছবর ‘অ্যাকশন কিং’ (Action King)। এক সময় ঢাকাই সিনেমা মার্শাল আর্ট নিয়ে মগ্ন ছিলেন। তিনি এখনও অভিনয় করছেন। তার অভিনীত চারটি সিনেমা মুক্তির অপেক্ষায় রয়েছে। ‘ধ্বংস মানুষ’ (‘Destroyed Man’), ‘ক্রাইম ওয়ার্ল্ড’ (‘Crime World’), ‘ওয়ান পিস অফ হিস্ট্রি অফ একাত্তর’ ও বীর বাঙালি। চলতি মাসের ২০ তারিখে ‘ইনসান’ ছবির শুটিং হওয়ার কথা ছিল।

কিন্তু ক্রমবর্ধমান ক/রো/না/র কারণে তা স্থগিত করা হয়েছে। বর্তমানে শুটিং না থাকলেও বাংলাদেশ চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির নির্বাচনী প্রচারণায় ব্যস্ত এই নায়ক। মিশা-জায়েদ প্যানেল থেকে সহ-সভাপতি পদে লড়ছেন রুবেল। জয়ের ব্যাপারে আপনি কতটা আত্মবিশ্বাসী? রুবেল বলেন, আমি জয়ের ব্যাপারে শতভাগ আত্মবিশ্বাসী। ইনশাআল্লাহ, আমাদের পুরো মিশা-জায়েদ প্যানেলের (Misha-Zayed panel) সবাই জয়ী হবে। কারণ আমরা সব সময় শিল্পীদের পাশে ছিলাম। ক/রো/নাতেও মৃ/ত্যু/র ঝুঁকি নিয়ে শিল্পীদের যেকোনো প্রয়োজনে ছুটে যাই। আমরা সাধ্যমত সহযোগিতা করেছি।

তারা ভোটের মাধ্যমে প্রতিদান দেবে। এখন আমি আপনার ব্যক্তিগত জীবন সম্পর্কে জানতে চাই. এখন আর অভিনয় নিয়ে ব্যস্ততা নেই। আপনি কিভাবে সময় কাটান? রুবেল বলেন, সময়ের সাথে সাথে অনেক মানুষ বদলে যায়। এখন আমি জীবনের শেষ পর্যায়ে। আমি মনে করি, একজন মুসলিম হিসেবে আমার একটি পা ইতিমধ্যে কবরে চলে গেছে। কারণ আমার বয়স ৬০ বছরের বেশি। এই মুহূর্তে আমি সব সময় পাঁচ ওয়াক্ত নামাজ পড়ি, কোরআন পড়ি, আল্লাহকে ডাকি।

আমি সৎ হতে চেষ্টা করি। কারো ক্ষতি না করার চেষ্টা করি। আপনার কর্মজীবনে কোন ব্যর্থতা আছে? এই নায়কের উত্তর- আমার চলচ্চিত্র ক্যারিয়ারে কোনো কিছুর অভাব নেই। দর্শক, পরিচালক সব জায়গা থেকে ভালোবাসা পেয়েছি। এটাই বড় ব্যাপার। চলচ্চিত্রে কাজ করে অনেকের ভালোবাসা পেয়েছি। ভক্তদের ঘিরে কোনো বিশেষ ঘটনা আছে কি? রুবেল বলেন, ‘অনেক মানুষ আমাকে দেখতে চায়, ছবি তুলতে চায়।

অনেকে জড়িয়ে ধরে। আমি কখনই বিরক্ত হইনি। ভক্তদের চাহিদা মেটানোর চেষ্টা করি। আমি তাদের ভালবাসি। আমি তাদের জন্য নায়ক হয়েছি। এই মুহূর্তে একটা ঘটনা মাথায় আসে। ৯০ এর দশকে ইতালিতে গিয়েছিলেন। আমি রাস্তা দিয়ে হাঁটছিলাম যখন এক বাঙালী ভদ্রলোক ছাতা বিক্রি করছিলেন। হঠাৎ তিনি আমাকে চিনতে পারলেন।

তারপর আমাকে জড়িয়ে ধরে কেঁদে ফেলল। তারপর কান্না থামিয়ে একটা কথা বললেন, রুবেল ভাই, মু/তু/এর আগে তোমাকে দেখে আমার খুব ভালো লাগছিল। সেই ইচ্ছা পূরণ হলো। আমার আর কোন ক্ষমতা নেই। আমার কাছে মনে হয় যে একজন শিল্পী এই ঘটনার মুখোমুখি হয়ে এবং এমন কিছু শোনার পরে জীবনে এর থেকে বেশি পাওয়ার আর থাকতেই পারে না। ভক্তদের উদ্দেশে রুবেল বলেন, আপনারা সবাই ভালো থাকবেন, সুস্থ থাকবেন। করোনা যেভাবে দিন দিন বাড়ছে সে সম্পর্কে আমাদের সচেতন হওয়া উচিত। মাস্ক ব্যবহার করতে হবে। বেশি মানুষের ভিড় না করাই ভালো।

নব্বই দশক থেকে বাংলাদেশের সিনেমার সঙ্গে যুক্ত রয়েছেন চিত্র নায়ক রুবেল। তিনি তার দীর্ঘ সময়ের অভিনয় জগতের ক্যারিয়ারে অসংখ্য সিনেমায় অভিনয় করেছেন। তার অভিনীত সিনেমা গুলো দ্রশক মাঝে ব্যপক সাড়া ফেলেছে। বর্তমান সমেয়ও দেশ জুড়ে তার অসংখ্য ভক্ত-অনুরাগী এবং জনপ্রিয়তা রয়েছে।

Check Also

নামাজের হিসাব আমি মানুষকে কেন দেব: সানাই

বিনোদন জগতে পা রেখেছিলেন নায়িকা হওয়ার জন্য। কিছুদিন মডেলিং করার পর সিনেমায় সুযোগও পান। অভিনয় …