খুলনায় প্রতিমার মাথা ভেঙে পালানোর সময় হিন্দু যুবক আটক

খুলনার ফুলতলার মোজাম মহলদার (এম এম কলেজ) কলেজ সার্বজনীন পূজা মন্দিরে স্বরস্বতী প্রতিমা ভেঙে পালানোর সময় অনিক মন্ডল (১৭) নামে হিন্দু সম্প্রদায়ের এক যুবককে আটক করে পুলিশে সোপর্দ করেছে স্থানীয়রা। অনিক মন্ডল যশোর জেলার অভয়নগর উপজেলার ধূলগ্রামের অসীম মন্ডলের ছেলে।

গতকাল শুক্রবার (৬ এপ্রিল) দুপুর সোয়া ১২টায় কলেজ মন্দিরে মূর্তি ভাঙার ঘটনা ঘটে। আটক অনিক একজন মূর্তি তৈরির কারিগর। সে মন্দিরে ঢুকে প্রতিমার মাথা ভেঙে পালিয়ে যাচ্ছিল। এ সময় স্থানীয়রা তাকে আটক করে। পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, এম এম কলেজের এমএলএসএস খোরশেদ আলম তার দায়িত্ব পালনকালে ওই যুবককে একটি শপিং ব্যাগ হাতে নিয়ে মন্দির থেকে বের হতে দেখে।

তাকে সন্দেহবশত আটক করা হয় এবং ব্যাগের মধ্যে স্বরস্বতীর প্রতিমার ভাঙা মাথা দেখতে পান। অনিককে আটক করে মন্দির কমিটিকে জানানো হলে তারা পুলিশকে খবর দেয়। এ ঘটনায় মন্দির কমিটির ভারপ্রাপ্ত সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা সুবোধ কুমার বসু বাদী হয়ে অনিক মন্ডলকে আসামী করে ফুলতলা থানায় মামলা দায়ের করেন।

এ ব্যাপারে ফুলতলা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. ইলিয়াস তালুকদার বলেন, মন্দিরের ভেতরে অনাধিকার প্রবেশ করে ধর্মীয় অবমাননার উদ্দেশ্যে স্বরস্বতীর প্রতিমা ভাঙচুর করে ক্ষতি সাধন এবং চুরির অপরাধে অনিক মন্ডলকে আটক করা হয়েছে। তবে অন্য কোন উদ্দেশ্য ছিল কিনা সেটি খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

ওসি আরও বলেন, প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে অনিক মূর্তি ভাঙার কথা স্বীকার করেছে। তবে কী কারণে সে মূর্তি ভেঙেছে তা জানায়নি। এ ঘটনায় মামলা দায়েরের প্রক্রিয়া চলছে। এদিকে স্থানীয়রা জানিয়েছেন, সুকৌশলে এই অপকর্ম করে স্থানীয় মুসলিমদের ফাঁসানোর ষড়যন্ত্র করেছিল অনিক মন্ডল। তাকে আটক করা সম্ভব না হলে এ ঘটনায় অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটে যেতে পারতো।

About admin

আমার পোস্ট নিয়ে কোন প্রকার প্রশ্ন বা মতামত থাকলে কমেন্ট করে জানাতে পারেন অথরা মেইল করতে পারেন admin@sottotv.com এই ঠিকানায়।