সোমবার , জানুয়ারী 30 2023

বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট নিয়ে প্রশ্ন উত্তর, সাধারণ জ্ঞান

বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট নিয়ে প্রশ্ন উত্তর, সাধারণ জ্ঞান, বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট a to z জেনে নিন: বাংলাদেশের স্যাটেলাইটের নাম হচ্ছে বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট। এখন পর্যন্ত বাংলাদেশের এই একটি মাত্র স্যাটেলাইট রয়েছে। অনেকেই বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে চান। আবার অনেকেই বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট নিয়ে প্রশ্ন উত্তর জানতে চান। এই পোস্টে আমি বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট সম্পর্কে সাধারণ জ্ঞান আলোচনা করব। আপনারা বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট সম্পর্কে সকল প্রশ্ন উত্তর জানতে পারবেন। তাহলে বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট সম্পর্কে জেনে নিন –

প্রশ্নঃ বাংলাদেশের স্যাটেলাইট এখন কোথায়?
উত্তরঃ‌ বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট ভূপৃষ্ঠ থেকে ৩৫৭০০ কিলোমিটার উচ্চতায় যাওয়ার পর রকেটের স্টেজ ১ অংশ থেকে সম্পূর্ণভাবে বিচ্ছিন্ন হয়ে যায় এবং ৩৬০০০ কিলোমিটার উপর থেকে বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট পৃথিবীকে প্রদক্ষিণ করছে। বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইটটি প্রায় ৩.৭ কিলোমিটার বেগে পৃথিবীকে প্রদক্ষিণ করছে।

প্রশ্নঃ বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট এর কাজ কি?
উত্তরঃ বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইটের প্রধান কাজ হচ্ছে টিভি চ্যানেলগুলোর স্যাটেলাইট সেবা নিশ্চিত করা। ডিটিএইচ বা ডিরেক্ট টু হোম ডিশ সার্ভিস বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইটের সাহায্যে তৈরি করা যাবে। এছাড়াও যেসব জায়গায় অপটিক কেবল বা সাবমেরিন কেবল পৌছায়নি সেসব জায়গায় বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইটের সাহায্যে ইন্টারনেট সংযোগ নিশ্চিত হতে পারে।

প্রশ্নঃ বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট পরিচালনা করে কোন প্রতিষ্ঠান?
উত্তরঃ বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট পরিচালনা করে ‘বাংলাদেশ কমিউনিকেশন স্যাটেলাইট কোম্পানি লিমিটেড’ প্রতিষ্ঠান।

আরো পড়ুনঃ যমুনা সেতু সম্পর্কে সাধারণ জ্ঞান.

প্রশ্নঃ বাংলাদেশের প্রথম স্যাটেলাইটের নাম কি?
উত্তরঃ বাংলাদেশের প্রথম স্যাটেলাইটের নাম – বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট-১

প্রশ্নঃ বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট কোথায় থেকে উৎক্ষেপণ করা হয়?
উত্তরঃ যুক্তরাষ্ট্রের ফ্লোরিডা অঙ্গরাজ্যে অবস্থিত নাসার জন এফ কেনেডি স্পেস সেন্টার কমপ্লেক্সের ৩৯এ লঞ্চপ্যাড থেকে বঙ্গবন্ধু-১ স্যাটেলাইট উৎক্ষেপণ করা হয়।

প্রশ্নঃ বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট-১ কবে মহাকাশে উৎক্ষেপণ হয়?
উত্তরঃ ১১ মে ২০১৮ সালে বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট-১ মহাকাশে উৎক্ষেপণ করা হয়।

প্রশ্নঃ বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট ১ কোন দেশের তৈরি?
উত্তরঃ ফ্রান্সের থ্যালিস অ্যালেনিয়া স্পেস কর্তৃক নকশা ও বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট ১ তৈরি করা হয়েছে।

প্রশ্নঃ বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট কি?
উত্তরঃ বাংলাদেশের প্রথম ভূস্থির যোগাযোগ ও সম্প্রচার উপগ্রহ হচ্ছে বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট।

প্রশ্নঃ বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট কবে উৎক্ষেপণ করা হয়?
উত্তরঃ বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট ১১ মে ২০১৮ সালে উৎক্ষেপণ করা হয়

প্রশ্নঃ বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট কোন দেশ থেকে উৎক্ষেপণ করা হয়?
উত্তরঃ বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট যুক্তরাষ্ট্র থেকে উৎক্ষেপণ করা হয়।

প্রশ্নঃ বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট-১ নিয়ন্ত্রণ করার জন্য কয়টি গ্রাউন্ডস্টেশন নির্মাণ করা হয়েছে?
উত্তরঃ বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট-১ উৎক্ষেপণের পর এটি নিয়ন্ত্রণ করতে গাজীপুরের তেলীপাড়া ও রাঙ্গামাটির বেতবুনিয়ায় গ্রাউন্ড স্টেশন নির্মাণ করা হয়েছে।

প্রশ্নঃ বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইটের গ্রাউন্ড স্টেশন কয়টি?
উত্তরঃ বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইটের গ্রাউন্ড স্টেশন দুটি।

প্রশ্নঃ বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট ১ এর নির্মাতা প্রতিষ্ঠানের নাম কি?
উত্তরঃ বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট ১ এর নির্মাতা প্রতিষ্ঠানের নাম থ্যালিস অ্যালেনিয়া স্পেস।

প্রশ্নঃ বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট কত তারিখে উৎক্ষেপণ হয়?
উত্তরঃ বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট ১১ মে তারিখে উৎক্ষেপণ হয়।

প্রশ্নঃ বাংলাদেশ নিজস্ব স্যাটেলাইট কততম দেশ?
উত্তরঃ বাংলাদেশ নিজস্ব স্যাটেলাইট ৫৭ তম দেশ।

প্রশ্নঃ বাংলাদেশ কততম দেশ হিসেবে স্যাটেলাইট উৎক্ষেপণ করে?
উত্তরঃ বাংলাদেশ ৫৭ তম দেশ হিসেবে স্যাটেলাইট উৎক্ষেপণ করে।

প্রশ্নঃ বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইটের মেয়াদ কত বছর?
উত্তরঃ বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইটের মেয়াদ ১৫ বছর।

প্রশ্নঃ বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট মহাকাশে কত সালে প্রেরণ করা হয়?
উত্তরঃ বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট মহাকাশে ২০১৮ সালে প্রেরণ করা হয়।

প্রশ্নঃ বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট বহনকারী রকেটের নাম কি?
উত্তরঃ বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট বহনকারী রকেটের নাম হচ্ছে – Falcon 9

প্রশ্নঃ বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইটের ট্রান্সপন্ডার কতটি?
উত্তরঃ বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইটের ট্রান্সপন্ডার 40 টি।

প্রশ্নঃ বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইটের অরবিটাল অবস্থান কোথায়?
উত্তরঃ বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইটের অরবিটাল অবস্থান ১১৯.১ ডিগ্রি পূর্ব দ্রাঘিমাংশে।

প্রশ্নঃ কবে বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট বাণিজ্যিক কার্যক্রম শুরু হয়?
উত্তরঃ বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট ১ অক্টোবর ২০১৯ তারিখে বাণিজ্যিক কার্যক্রম শুরু হয়।

বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট-১ বিষয়ক সাধারণ জ্ঞান

প্রশ্ন : বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট-১ উৎক্ষেপণ করা হয় কবে?
উত্তর : ১১ মে ২০১৮ (বাংলাদেশ সময় ১২ মে ২০১৮)

প্রশ্ন : নির্মাতা বা প্রস্তুতকারক প্রতিষ্ঠান কোনটি?
উত্তর : Thales Alenia Space

প্রশ্ন : উৎক্ষেপণকারী প্রতিষ্ঠান কোনটি?
উত্তর : SpaceX

প্রশ্ন : স্যাটেলাইট বহনকারী রকেটের নাম কী?
উত্তর : Falcon9

প্রশ্ন : স্যাটেলাইট পরিচালনা করবে কোন প্রতিষ্ঠান?
উত্তর : বাংলাদেশ কমিউনিকেশন্স স্যাটেলাইট কোম্পানি লি. (BCSCL)

প্রশ্ন : স্যাটেলাইটের গ্রাউন্ড স্টেশন কতটি ও কী কী
উত্তর : ২টি– গাজীপুরের তালিবাবাদ ও রাঙামাটির বেতবুনিয়া

প্রশ্ন : স্যাটেলাইটের ট্রান্সপন্ডার কতটি? উত্তর : ৪০টি। এর মধ্যে ১৪টি ‘সি’ ব্যান্ডের (C-band) এবং ২৬টি ‘কে-ইউ’ ব্যান্ডের (Ku-band)

প্রশ্ন : স্যাটেলাইটের অরবিটাল অবস্থান কোথায়?
উত্তর : ১১৯.১ ডিগ্রি পূর্ব দ্রাঘিমাংশে।

প্রশ্ন : স্যাটেলাইটের গ্রাউন্ড স্টেশন কতটি ও কী কী?
উত্তর : ২টি— সজীব ওয়াজেদ উপগ্রহ ভূ-কেন্দ্র গাজী এবং সজীব ওয়াজেদ উপগ্রহ ভূ-কেন্দ্র বেতবুনি

ভিডিওতে দেখুন: বঙ্গবন্ধু-১ স্যাটেলাইট সম্পর্কে সাধারণ জ্ঞান ।Bangabandhu-1 satellite

সাধারণ জ্ঞান (বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট-১) প্রশ্ন এবং উত্তর

বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট-১

১.’বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট-১’ বহনকারী রকেটের নাম –
→ ফ্যালকন-৯।

২. ’বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট-১’ এর মেয়াদকাল-
→ ১৫ বছর।

Also read :সাম্প্রতিক সাধারণ জ্ঞান ২০২১ – অতি সাম্প্রতিক সাধারণ জ্ঞান ২০২১
৩. ’বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট-১’ নিজস্ব কক্ষপথে পৌঁছে –
→ ২১ মে ২০১৮।

৪.মহাকাশে ’বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট-১’ এর অবস্থান –
→ ১১৯.১০ পূর্ব দ্রাঘিমাংশে।

৫. ’বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট-১’ এর ট্রান্সপন্ডার রয়েছে –
→ ৪০টি।

৬.বাংলাদেশ ব্যবহার করবে –
→ ২০টি ট্রান্সপন্ডার।

৭.বাংলাদেশ ভাড়া নিতে পারবে –
→ ২০টি ট্রান্সপন্ডার।

৮. ’বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট-১’ বাংলাদেশ বুঝে পায় –
→ ৯ নভেম্বর ২০১৮।

৯. ’বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট-১’ এর বাণিজ্যিক কার্যক্রম শুরু হয় –
→ ১ অক্টোবর ২০১৯।

১০. ’বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট-১’ মূল অবকাঠামো তৈরী করে –
→ ফ্রান্সের মহাকাশ সংস্থা ‘থ্যালেস অ্যালেনিয়া স্পেস’।

বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট-২ সম্পর্কিত তথ্য

বাংলাদেশ ২০২৩ সালের ডিসেম্বরের মধ্যে তার দ্বিতীয় স্যাটেলাইট ‘বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট-২’ উৎক্ষেপণ করতে যাচ্ছে। ১২ মে ২০১৮ সালে মহাকাশে বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট-১’ উৎক্ষেপণের মাধ্যমে, বাংলাদেশ স্যাটেলাইটের অভিজাত ক্লাবের ৫৭ তম সদস্য হয়েছে। বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট-১ প্রকল্পে ব্যয় হয়েছে ২ হাজার ৭৬৫ কোটি টাকা।

স্যাটেলাইটটি পৃথিবী থেকে ৩৬,০০০ কিলোমিটার দূরে অবস্থি। এটি বাংলাদেশ এবং দক্ষিণ এশিয়ার অন্যান্য দেশে পরিষেবা প্রদান করে। বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট-২ উৎক্ষেপণের মাধ্যমে বাংলাদেশ অপটিক্যাল ও রাডার ইমেজ ও অ্যাপ্লিকেশনের মাধ্যমে পৃথিবী পর্যবেক্ষণে স্বনির্ভর হয়ে উঠবে।

বাংলাদেশী নিরাপত্তা এবং আইন প্রয়োগকারী সংস্থার নিরাপত্তা চিত্র প্রয়োজন যা বাণিজ্যিকভাবে উপলব্ধ নয়। বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট-২ সেই প্রক্রিয়া সহজ করবে। বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট-২ শুধুমাত্র বাণিজ্যিক উদ্দেশ্যে উৎক্ষেপণ করা হবে না। এটি চর এবং উপকূলীয় সাইট সহ দেশের প্রত্যন্ত অঞ্চলকে কভার করবে।

বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট-২ উৎক্ষেপণের লক্ষ্যে, বাংলাদেশ স্যাটেলাইট কোম্পানি লিমিটেড (বিএসসিএল) ২ ফেব্রুয়ারি ২০২২ তারিখে রাশিয়ান কোম্পানি গ্লাভকোসমসের সাথে একটি সহযোগিতা চুক্তি স্বাক্ষর করে। চুক্তিটি সমঝোতা স্মারক (এমওইউ) নামে পরিচিত, উভয় পক্ষই বিস্তারিত প্রযুক্তিগত বিষয়ে কাজ করবে এবং আর্থিক সমস্যা এমওইউ স্বাক্ষরের মুহূর্ত থেকে কার্যকর হয় এবং ৩১ ডিসেম্বর ২০২৬ পর্যন্ত বৈধ থাকবে।

চাকরির পরীক্ষায় বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট নিয়ে যেসব প্রশ্ন হতে পারে

বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট পরিচিতি : নাম : বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট-১। এটি একটি কৃত্রিম উপগ্রহ। জিও-স্টেশনারি স্যাটেলাইট বা ভ‚স্থির উপগ্রহ। ২০১৫ সালের ১১ নভেম্বর ফ্রান্সের থ্যালেস অ্যালেনিয়া স্পেসের সঙ্গে বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট-১ নির্মাণের চুক্তি স্বাক্ষর করে বাংলাদেশ। তবে জেনে রাখা ভালো যে, বাংলাদেশে প্রথম স্যাটেলাইট নিয়ে কাজ শুরু হয় ২০০৭ সালে। আওয়ামী লীগ সরকারে আসার পর ২০০৯ সালে জাতীয় তথ্যপ্রযুক্তি নীতিমালায় রাষ্ট্রীয় স্যাটেলাইট উৎক্ষেপণের বিষয়টি যুক্ত করা হয়।

বাংলাদেশের প্রথম স্যাটেলাইট কোম্পানি : মহাকাশে উৎক্ষেপণের পর বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট-১ পরিচালনার জন্য ‘বাংলাদেশ কমিউনিকেশন স্যাটেলাইট কোম্পানি লিমিটেড’ নামে একটি কোম্পানি গঠন করা হয়।

নির্মাণ : বঙ্গবন্ধু-১ স্যাটেলাইটের মূল অবকাঠামো তৈরি করেছে ফ্রান্সের থ্যালেস অ্যালেনিয়া স্পেস। এটির নির্মাণ শেষ হয় ২০১৮ সালের ৩০ মার্চ। নির্মাণ, পরীক্ষা, পর্যালোচনা ও হস্তান্তর শেষে বিশেষ কার্গো বিমানে করে সেটি যুক্তরাষ্ট্রের ফ্লোরিডার কেইপ কেনাভেরালের লঞ্চ সাইটে পাঠায় থ্যালেস অ্যালেনিয়া। বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট-১-এর ওজন তিন হাজার কেজি।

অর্থায়ন : শুরুতে বাজেট ধরা হয় ২৯৬৭.৯৫ কোটি টাকা। শেষ পর্যন্ত অবশ্য ২৭৬৫ কোটি টাকায় এ পুরো প্রকল্প বাস্তবায়ন সম্ভব হয়। এর মধ্যে ১৩১৫ কোটি টাকা দিয়েছে বাংলাদেশ সরকার। আর ১ হাজার ৩৫৮ কোটি টাকা ঋণ হিসেবে দিয়েছে হংক সাংহাই ব্যাংকিং কর্পোরেশন (এইচএসবিসি)ব্যাংক। এটি একটি বহুজাতিক ব্যাংক।

যা আছে : এই স্যাটেলাইটে ৪০টি ট্রান্সপন্ডার আছে। যার ২০টি বাংলাদেশের ব্যবহারের জন্য রাখা হবে। আর বাকি ২০টি ভাড়া দিয়ে বৈদেশিক মুদ্রা অর্জন সম্ভব হবে।

কক্ষপথ কেনা : স্যাটেলাইটটি উৎক্ষেপণ এবং তা কক্ষপথে রাখার জন্য রাশিয়ার ইন্টারস্পুটনিকের কাছ থেকে কক্ষপথ (অরবিটাল স্লট) কেনা হয়। মহাকাশে এই কক্ষপথের অবস্থান ১১৯ দশমিক ১ ডিগ্রি পূর্ব দ্রাঘিমাংশে। ২০১৫ সালের জানুয়ারিতে সম্পাদিত চুক্তির ভিত্তিতে প্রায় ২১৯ কোটি টাকায় ১৫ বছরের জন্য এই কক্ষপথ কেনা হয়।

স্যাটেলাইটের ফুটপ্রিন্ট : বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইটের ফুটপ্রিন্ট বা কভারেজ হবে ইন্দোনেশিয়া থেকে তাজিকিস্তান পর্যন্ত বিস্তৃত। শক্তিশালী কেইউ ও সি ব্যান্ডের মাধ্যমে এটি সবচেয়ে ভালো কাভার করবে পুরো বাংলাদেশ, সার্কভুক্ত দেশসমূহ, ফিলিপাইন এবং ইন্দোনেশিয়া।

বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইটের গ্রাউন্ড স্টেশন : বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইটের গ্রাউন্ড স্টেশন স্থাপন করা হয়েছে গাজীপুর জেলার জয়দেবপুর ও রাঙ্গামাটির বেতবুনিয়ায়। এর মধ্যে গাজীপুরের তেলীপাড়ায় টেলিযোগাযোগ স্টাফ কলেজ সংলগ্ন এলাকায় স্থাপিত বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট প্রাইমারি গ্রাউন্ড স্টেশনটি সম্পূর্ণ প্রস্তুত রয়েছে। এটিই মূল নিয়ন্ত্রণ কেন্দ্র হবে বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইটের। আর রাঙ্গামাটির গ্রাউন্ড স্টেশনটি গাজীপুরে স্থাপন করা গ্রাউন্ড স্টেশনের বিকল্প।

উৎক্ষেপণকারী প্রতিষ্ঠান ও উৎক্ষেপণকারী রকেট : বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইটটি মহাকাশে পাঠানোর কাজ করে মার্কিন রকেট নির্মাতা প্রতিষ্ঠান স্পেসএক্স। বেসরকারি মহাকাশ গবেষণা সংস্থা স্পেসএক্স। বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট-১ নিয়ে উড়াল দেয় ‘ফ্যালকন-৯’ রকেট।

মহাকাশে বাংলাদেশ : স্যাটেলাইট উৎক্ষেপণ স্থগিত : বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট প্রথমে ২০১৭ সালের ১৬ ডিসেম্বর উৎক্ষেপণের কথা ছিল। কিন্তু ঘূর্ণিঝড় ইরমার কারণে এর উৎক্ষেপণ স্থগিত করা হয়। এরপর ২০১৮ সালের ১০ মে (বৃহস্পতিবার) বাংলাদেশ সময় রাত ৩টা ৪৭ মিনিটে উৎক্ষেপণের সময় নির্ধারণ করা হয়েছিল। কিন্তু উৎক্ষেপণের ৪২ সেকেন্ড আগে স্যাটেলাইট উৎক্ষেপণ স্থগিত করা হয়। স্পেসএক্সের পক্ষ থেকে জানানো হয়, রকেট ও পে লোড ভালোই আছে। কিন্তু কিছু কারিগরি ত্রুটির কারণে তা উৎক্ষেপণ করা যায়নি। পরে ব্যাকআপ ডেতে (পরের দিন) উৎক্ষেপণের দিন নির্ধারণ করা হয়।

সফল উৎক্ষেপণ : উৎক্ষেপণের তারিখ হচ্ছে-১২ মে ২০১৮। বাংলাদেশ সময় রাত ২টা ১৪ মিনিট।

উৎক্ষেপণ স্থান : যুক্তরাষ্ট্রের ফ্লোরিডার কেনেডি স্পেস সেন্টার থেকে বঙ্গবন্ধু-১ স্যাটেলাইট উৎক্ষেপণ করা হয়।

বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইটের সুবিধাসমূহ : বর্তমানে দেশের টেলিভিশন চ্যানেলগুলো সিঙ্গাপুরসহ বিশ্বের বিভিন্ন দেশ থেকে স্যাটেলাইট ভাড়া নিয়ে তাদের কার্যক্রম পরিচালনা করছে। এজন্য বছরে ব্যয় হচ্ছে প্রায় ১২৫ কোটি টাকা। বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট চালুর ফলে অনেকাংশেই কমে আসবে এ ব্যয়। একই সঙ্গে দেশের টাকা থেকে যাবে দেশেই। আয় হবে বৈদেশিক মুদ্রা।

টেলিভিশন চ্যানেল ছাড়াও ইন্টারনেট সেবাদানকারী প্রতিষ্ঠান, ভি-স্যাট ও বেতারসহ ৪০ ধরনের সেবা পাওয়া যাবে এ স্যাটেলাইটের মাধ্যমে।

যেকোনো ধরনের প্রাকৃতিক দুর্যোগে টেরিস্ট্রিয়াল অবকাঠামো ক্ষতিগ্রস্ত হলেও বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট দেশে নিরবচ্ছিন্ন যোগাযোগ ব্যবস্থা ও পরিবেশ যোগাযোগ মাধ্যম হিসেবে ই-সেবা নিশ্চিত করবে।

এছাড়া আবহাওয়ার পূর্বাভাস, টেলিমেডিসিন, ই-লার্নিং, ই-রিসার্চ, ভিডিও কনফারেন্স প্রতিরক্ষা ও দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা সম্পর্কে ভালো তথ্য-উপাত্ত পাওয়া যাবে এ স্যাটেলাইটের মাধ্যমে।

এ স্যাটেলাইট উৎক্ষেপণের ফলে নেপাল, মিয়ানমার, ভুটান ও অন্যান্য দেশের কাছে সেবা ভাড়া দিতে পারবে বাংলাদেশ। এর মাধ্যমে বছরে প্রায় ৫০ মিলিয়ন মার্কিন ডলার আয় করা যাবে।

বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট ২ কি ধরনের স্যাটেলাইট (বিস্তারিত জানুন

বঙ্গবন্ধু ১ স্যাটেলাইট হলো বাংলাদেশের প্রথম ভূস্থির যোগাযোগ ও সম্প্রচার উপগ্রহ। এটি ২০১৮ সালের ১১ মে কেনেডি স্পেস সেন্টার থেকে উৎক্ষেপণ করা হয়। তারই ধারাবাহিকতায় ২০২৩ সালে বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট ২ উৎক্ষেপণ করা হবে। কিন্তু বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট ২ নিয়ে আমাদের বিভিন্ন রকমের প্রশ্ন আছে। বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট ২ কি ধরনের স্যাটেলাইট,বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট ২ তৈরি ও উৎক্ষেপণ করবে কোন প্রতিষ্ঠান,বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট ২ এর কাজ ও বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট ২ সম্পর্কে সাধারণ জ্ঞান ইত্যাদি। আপনার যদি উপরোক্ত এগুলো প্রশ্ন থাকে। তাহলে অবশ্যই আজকের আর্টিকেল মনোযোগ সহকারে পড়বেন। কারণ আজকের আর্টিকেলে আমরা বঙ্গবন্ধুর স্যাটেলাইট ২ সম্পর্কে সঠিক ধারণা দেওয়ার চেষ্টা করব।

বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট ২ কি ধরনের স্যাটেলাইট

বিএসসিএল চেয়ারম্যান শাজাহান মাহমুদ জানিয়েছেন, বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট ২ হাইব্রিড স্যাটেলাইট হতে পারে। এই স্যাটেলাইটটি আবহাওয়া, নজরদারি বা নিরাপত্তাসংক্রান্ত কাজে ব্যবহৃত হবে। তবে এখনো যেহেতু ধরনটি ঠিক হয়নি, তাই দ্বিতীয় স্যাটেলাইটে কত খরচ হবে, এটি এখনো অজানা।

তবে বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট ২ কখন আকাশে উত্থাপন করা হবে তার একটি নির্দিষ্ট সময় বলে দেয়া হয়েছে। মূলত ২০২৩ সালে বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট ২ আকাশের উৎক্ষেপণ করা হবে। এর আগে ২০১৮ সালের ১২ মে বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট-১ মহাকাশে উৎক্ষেপণের মাধ্যমে বিশ্বের ৫৭তম দেশ হিসেবে স্যাটেলাইটের অভিজাত ক্লাবে প্রবেশ করে বাংলাদেশ। এতে বাংলাদেশের খরচ হয় ২ হাজার ৯০২ কোটি টাকা।

বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট ২ এর কাজ

বাংলাদেশ ২০২৩ সালের ডিসেম্বরের মধ্যে তার দ্বিতীয় স্যাটেলাইট বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট ২ উৎক্ষেপণ করতে যাচ্ছে। যেহেতু বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট ২ নতুন একটি স্যাটেলাইট। সে ক্ষেত্রে আমাদের এটা নিয়ে বিভিন্ন রকমের প্রশ্ন থাকবে। এর মধ্যে অন্যতম একটি প্রশ্ন হল বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট ২ এর কাজ কি।

বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট ২ হাইব্রিড স্যাটেলাইট হতে পারে। এই স্যাটেলাইটটি আবহাওয়া, নজরদারি বা নিরাপত্তাসংক্রান্ত কাজে ব্যবহৃত হবে। অর্থাৎ বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট ২ মূলত আবহাওয়া,নজরদারি ও নিরাপত্তা সংক্রান্ত সকল কাজে ব্যবহার করা হবে।

এছাড়াও যদি কোন খারাপ আবহাওয়া আসে সেক্ষেত্রে তার সংকেত দিতে সাহায্য করবে এই স্যাটেলাইট। এছাড়াও দেশের নিরাপত্তা প্রায় সকল কাজে ব্যবহার করা যাবে বঙ্গবন্ধুর ২ স্যাটেলাইট। বঙ্গবন্ধু শেখ স্যাটেলাইটের চেয়ে বঙ্গবন্ধুর দুই স্যাটেলাইট বেশি কাজে ব্যবহার করা যাবে।

বঙ্গবন্ধু দুই স্যাটেলাইট উৎক্ষেপণের জন্য রাশিয়ার পরামর্শক প্রতিষ্ঠান গ্লাভকসমসের সঙ্গে চুক্তি হয়েছে। পরামর্শক প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে সম্প্রতি প্রায় দুই লাখ মার্কিন ডলার মূল্যে এ চুক্তি হয়েছে। প্রতিষ্ঠানটি ইতিমধ্যে কাজ শুরু করে দিয়েছে।

যেহেতু বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট ২ হাইব্রিড স্যাটেলাইট। সেক্ষেত্রে এর খরচ ও কার্যকারিতা অনেক বেশি হবে। এই কারণে সবাইকে অপেক্ষা করতে হবে ২০২৩ সালের ডিসেম্বর মাস পর্যন্ত। তাহলে আপনি এই স্যাটেলাইটের কার্যকারিতা নিজ চোখে দেখতে পারবেন এবং ইতিপূর্বের অনুচ্ছেদেও আমরা বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট ২ কি ধরনের স্যাটেলাইট এ সম্পর্কে আলোচনা করেছি।

বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট ২ সম্পর্কে তথ্য

আমরা সবাই জানি, আমাদের দেশের সর্বপ্রথম বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট ২ উৎক্ষেপণ করা হয়। যা আমাদের বাংলাদেশের ইতিহাসে কখনো করে নি। তারই ধারাবাহিকতায় বাংলাদেশ প্রজাতন্ত্রী সরকার সিদ্ধান্ত নিয়েছে বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট ২ তৈরি করার। এইজন্য তারা রাশিয়ার স্যাটেলাইট উৎক্ষেপণে পরামর্শক প্রতিষ্ঠান গ্লাভকসমসের সঙ্গে চুক্তি হয়েছে।

উক্ত পরামর্শক প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে সম্প্রতি প্রায় দুই লাখ মার্কিন ডলার মূল্যে এ চুক্তি হয়েছে। রাশিয়ার স্যাটেলাইট উৎক্ষেপণ প্রতিষ্ঠান গ্লাভকসমস ইতিমধ্যে এই স্যাটেলাইটের কাজ শুরু করে দিয়েছে। তারা আশা করেন যে, ২০২৩ সালের ডিসেম্বর মাসে বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট ২ আকাশের উৎক্ষেপণ করবেন।

যা আমাদের বাংলাদেশের জন্য আরো একটি গৌরবময় অর্জন। রাশিয়া দেশের সাথে মূলত বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট ২ উৎক্ষেপণ ও নির্মাণ কাজের জন্য চুক্তি করা হয়েছে। মহাকাশে বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট-২ উৎক্ষেপণের জন্য রাশিয়ার গ্লাভকসমসের সঙ্গে সমঝোতা স্মারক সই করা হয়েছে। রাশিয়ার মহাকাশ বিষয়ক রাষ্ট্রীয় প্রতিষ্ঠান গ্লাভকসমসের সঙ্গে স্যাটেলাইট তৈরি করব।

বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট ২ তৈরি ও উৎক্ষেপণ করবে কোন প্রতিষ্ঠান

আশাকরি বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট ২ কি ধরনের স্যাটেলাইট এ সম্পর্কে পূর্বের অনুচ্ছেদে আপনি ধারণা পেয়েছেন। আমরা সবাই জানি,বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট ২ তৈরি করার ঘোষণা এসেছে । মূলত ২০২৩ সালের মধ্যে এটি তৈরি করার কাজ সম্পূর্ণ হয়ে যাবে। তবে স্যাটেলাইট নিয়ে আমাদের বিভিন্ন রকমের প্রশ্ন রয়েছে। তার মধ্যে সবথেকে গুরুত্বপূর্ণ একটি প্রশ্ন হল বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট ২ তৈরি ও উৎক্ষেপণ করবে কোন প্রতিষ্ঠান।

বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট ২ তৈরি ও উৎক্ষেপণ করবে রাশিয়ার গ্লাভকসমস। গ্লাভকসমসের সঙ্গে সমঝোতা স্মারক সই করা হয়েছে। রাশিয়ার মহাকাশ বিষয়ক রাষ্ট্রীয় প্রতিষ্ঠান গ্লাভকসমসের সঙ্গে স্যাটেলাইট তৈরি ও উৎক্ষেপণ বিষয়ে সহযোগিতা স্মারক সইয়ের মধ্য দিয়ে আর্থ অবজারভেটরি ক্যাটাগরির এই স্যাটেলাইটটির নির্মাণ পর্ব শুরু হচ্ছে।

বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট ২ নির্মাণ ও উৎক্ষেপণ

বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট ২ নির্মাণের কাজ ইতিমধ্যে শুরু হয়েছে। এটি তৈরি করার জন্য রাশিয়ার বিখ্যাত গ্লাভকসমসের সঙ্গে সমঝোতা করা হয়েছে। অর্থাৎ বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট ২ নির্মাণ করবে রাশিয়া। শুধু নির্মাণ কাজ নয় উৎক্ষেপণ করার কাজে গ্লাভকসমসের কোম্পানি সহযোগিতা করবে।

গ্লাভকসমসের মহাপরিচালক বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট-২ উৎক্ষেপণে রাশিয়ার রাষ্ট্রীয় প্রতিষ্ঠানের অংশগ্রহণের জন্য আনন্দিত বলে উল্লেখ করেন। অর্থাৎ এটা থেকে বোঝা গেল যে মূলত রাশিয়া দেশে বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট ২ উৎক্ষেপণ করা হবে।

বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট ২ সম্পর্কে সাধারণ জ্ঞান

বিশেষ পরীক্ষা থেকে শুরু করে প্রায় সকল ধরনের চাকরি পরীক্ষায় সাম্প্রতিক সময় ও বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট ২ সম্পর্কে সাধারণ জ্ঞানে অনেক প্রশ্ন আসে। এই কারণে আপনাকে অবশ্যই বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট ২ সম্পর্কে সাধারণ জ্ঞান গুলো পড়তে হবে। অর্থাৎ আপনার যদি বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট ২ সম্পর্কে সাধারণ জ্ঞান আগে থেকে জানা থাকে। তাহলে আপনি পরীক্ষায় ভালো ফলাফল অর্জন করতে পারবেন। চলুন দেখে নেই বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট ২ সম্পর্কেও সাধারণ জ্ঞান গুলো দেখে নেই।

প্রশ্নঃ বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট ২ কি ধরনের স্যাটেলাইট?

উত্তরঃ বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট ২ হাইব্রিড স্যাটেলাইট

প্রশ্নঃ বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট ২ এর কাজ কি?

উত্তরঃ বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট ২ আবহাওয়া, নজরদারি ও নিরাপত্তা সংক্রান্ত কাজে ব্যবহার করা হবে।

প্রশ্নঃ বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট ২ তৈরি ও উৎক্ষেপণ প্রতিষ্ঠান?

উত্তরঃ বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট ২ তৈরি ও উৎক্ষেপণ করবে রাশিয়ার গ্লাভকসমস।

প্রশ্নঃ বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট ২ কবে উৎক্ষেপণ করা হবে?

উত্তরঃ বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট ২,২০২৩ সালের ডিসেম্বর মাসে উৎক্ষেপণ করা হবে। (তারিখ পরিবর্তন হতে পারে)

প্রশ্নঃ বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট ২ কবে উৎক্ষেপণ করা হবে?

উত্তরঃ ২০২৩ সালের মধ্যে দেশের দ্বিতীয় স্যাটেলাইট উৎক্ষেপণ ও ব্যবহার শুরু হবে

প্রশ্নঃ বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট ২ কত সালে উৎক্ষেপণ করা হয়?

উত্তরঃ ২০২৩ সালে বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট ২ উৎক্ষেপণ করা হয়।

আরও: বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট নিয়ে প্রশ্ন, বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট ২ কোন ধরনের স্যাটেলাইট, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ডিজিটাল বিশ্ববিদ্যালয়, বঙ্গবন্ধুর ক্যারিশম্যাটিক নেতৃত্ব বিসিএস লিখিত, বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট ২ নিয়ে প্রশ্ন, বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট ২ কোন ধরনের, বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট ১ কোন দেশের তৈরি, বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট ২ নির্মাণ ও উৎক্ষেপণ, বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট কোন দেশ তৈরি করে, বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট পরিচালনা করে কোন প্রতিষ্ঠান, বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট ২ সম্পর্কে সাধারণ জ্ঞান, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় করোনা টিকা, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ডিজিটাল বিশ্ববিদ্যালয় ভর্তি ২০২০-২০২১, বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট 2 কোন ধরনের স্যাটেলাইট, বঙ্গবন্ধু টানেল কোথায়, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় করোনা টেস্ট, বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট-২ নির্মাণ ও উৎক্ষেপণ করবে রাশিয়া, বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইটের বর্তমান অবস্থা, বঙ্গবন্ধু ম্যাট্রিক পাশ করেন কোন স্কুল থেকে, বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট কোন দেশ থেকে উৎক্ষেপণ করা হয়, বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট-১ নিয়ন্ত্রণ করার জন্য কয়টি গ্রাউন্ডস্টেশন নির্মাণ করা হয়েছে, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান মেরিটাইম বিশ্ববিদ্যালয় ভর্তি সার্কুলার, বঙ্গবন্ধু টানেল নির্মাণ হচ্ছে কোথায়, বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট কোন দেশের তৈরি, বঙ্গবন্ধু ম্যাট্রিক পাশ করেন কোন স্কুল থেকে কত সালে, পাঠ্যবইয়ে বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে ভুল তথ্য: এনসিটিবির চেয়ারম্যানকে তলব, বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট উৎক্ষেপণ করা হয় কোন দেশ থেকে, বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট ১ এর নির্মাতা প্রতিষ্ঠানের নাম কি, বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট সম্পর্কে সাধারণ জ্ঞান, বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট নিয়ে প্রশ্ন pdf, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ডিজিটাল বিশ্ববিদ্যালয় কোথায়, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ডিজিটাল বিশ্ববিদ্যালয় ভর্তি ২০২০ ২১, পাকিস্তান আমলে বঙ্গবন্ধু যুক্তফ্রন্ট সরকারের মন্ত্রী নিযুক্ত হন কত সালে, বঙ্গবন্ধু কলকাতা ইসলামিয়া কলেজের বেকার হোস্টেলে কত নম্বর কক্ষে থাকতেন, বঙ্গবন্ধু কত সালে ম্যাট্রিক পাস করেন, বঙ্গবন্ধু ম্যাট্রিক পাশ করেন কত সালে, বঙ্গবন্ধু ফাউন্ডেশন কেন্দ্রীয় কমিটির তালিকা, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ডিজিটাল বিশ্ববিদ্যালয় আসন সংখ্যা, বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট ১ তৈরি করে কোন দেশ, বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট কোন ধরনের স্যাটেলাইট, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ডিজিটাল বিশ্ববিদ্যালয়, বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট বহনকারী রকেটের নাম কি, ১২০ কিলোমিটার বেগে ট্রেন ছুটবে বঙ্গবন্ধু রেলসেতুতে, বঙ্গবন্ধু টানেল কোথায় অবস্থিত, বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট টিভি চ্যানেল, বঙ্গবন্ধু ট্যানেল, বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট ১ সাধারণ জ্ঞান, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ডিজিটাল বিশ্ববিদ্যালয় নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ডিজিটাল বিশ্ববিদ্যালয় কোথায় অবস্থিত, বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট ১ বহনকারী রকেটের নাম কি, বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট ২ সম্পর্কে সাধারণ জ্ঞান,বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট নিয়ে প্রশ্ন pdf বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট ১ সম্পর্কে তথ্য, বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট ২ নিয়ে প্রশ্ন, সাধারণ জ্ঞান প্রশ্ন এবং উত্তর 2022, বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট বহনকারী রকেটের নাম, বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইটের গ্রাউন্ড স্টেশন কয়টি, বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট ১ বিসিএস

Check Also

সাম্প্রতিক সাধারণ জ্ঞান থেকে অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ ১৩০+ প্রশ্নোত্তর

প্রশ্ন : আন্তর্জাতিক আর্থিক প্রতিষ্ঠান নিউ ডেভেলপমেন্ট ব্যাংক (এনডিবি) বাংলাদেশ কত শতাংশ শেয়ার চায়? উত্তর …