ইডেন কলেজের সুন্দরীদের বাছাই করে চালাতো ব্যবসা: ছাত্রলীগ নেত্রী

রাজধানীর ইডেন মহিলা কলেজে ছাত্রলীগের বির্তক যেনো ছাড়ছেই না। গতকাল রাতে ইডেন কলেজে ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি জান্নাতুল ফেরদৌসকে মারধর করেন কলেজ শাখার সভাপতি তামান্না জেসমিন রিভা ও সাধারণ সম্পাদক রাজিয়া সুলতানা। মারধরের পর রাতে ক্যাম্পাস উত্তপ্ত হয়ে পড়ে। আধিপত্য বিস্তার, সিট বাণিজ্য, সাধারণ ছাত্রীদের হেনস্তাসহ নানা হয়রানির বিষয়ে মিডিয়ায় কথা বলার কারণে এ মারধরে শিকার হয় জান্নাতুল।

এদিকে ইডেন কলেজ শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি-সম্পাদককে অবাঞ্চিত ঘোষণা করে ছাত্রলীগের একাংশ। ইডেন কলেজ শাখা ছাত্রলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক সামিয়া আক্তার বৈশাখী গণমাধ্যমকে সভাপতি-সম্পাদককে নিয়ে বিস্ফোরক মন্তব্য করেন।

বৈশাখী বলেন, মেয়েরা উপস্থিতি খাতায় স্বাক্ষর করার সময় সভাপতির অনুসারীরা তাদের ছবি তুলে রাখেন। সেখান থেকে কোন মেয়েটা সুন্দর তা নির্বাচন করে রাখা হয়। তারপর সেই মেয়েদেরকে রুমে নিয়ে বিভিন্ন ধরনের হুমকি দেয়া হয়। খারাপ উদ্দেশ্যে তাদেরকে বিভিন্ন ধরনের প্রস্তাব দেয়া হয়। কিছুদিন আগে একজন মেয়ে কান্না করতে করতে এ বিষয়ে বিবৃতিও দিয়েছেন।

বৈশাখী আরও বলেন, আগেও এমন অনেক ঘটনা ঘটেছে। আমাদের রুমের মেয়েদেরকে তারা নিয়ে যেতে চেয়েছেন। কিন্তু মেয়েরা তো তাদের কাছে নিরাপদ মনে করেন না। কারণ তারা ওই মেয়েদেরকে দিয়ে বিভিন্ন ধরনের ব্যবসা করাতে চান।

উল্লেখ্য, সম্প্রতি বেশ কিছু বিতর্কিত কর্মকাণ্ডে কলেজ ছাত্রলীগের সভাপতি তামান্না জেসমিন রিভাকে নিয়ে তুমুল বিতর্ক চলছে। বিশেষ করে ছাত্রলীগের কর্মসূচিতে না যাওয়ায় শিক্ষার্থীদের অকথ্য ভাষায় গালাগাল ও হুমকি দেওয়ার একটি অডিও গণমাধ্যমকে ফাঁস হয়। যদিও পরে এ নিয়ে ক্ষমা চান তিনি। শুধু তাই নয়, এ ঘটনায় চার দিন পর রিভার বিরুদ্ধে দুই ছাত্রীকে বিবস্ত্র করে ভিডিও ভাইরাল করার হুমকি দেওয়ার অভিযোগ ওঠেছে।

ইডেন মহিলা কলেজে ছাত্রলীগের সভাপতি-সম্পাদককে অবাঞ্ছিত ঘোষণা ইডেন মহিলা কলেজ শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি তামান্না জেসমিন রিভা ও সাধারণ সম্পাদক রাজিয়া সুলতানাকে অবাঞ্চিত ঘোষণা করেছে ছাত্রলীগের একাংশ। রবিবার (২৫ সেপ্টেম্বর) দুপুর ১টায় ইডেন কলেজ ক্যাম্পাসে সংবাদ সম্মেলনে এ ঘোষণা দেন ইডেন কলেজ শাখা ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি সুস্মিতা বাড়ৈ ৷

তিনি বলেন, আপনাদের কাছে খবর আছে- ছাত্রলীগের যে তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে, সেখানে বেনজীর হোসেন নীশি আছেন। রোকেয়া হলের এজিএসকে মারধরের ঘটনায় পিবিআইয়ের তদন্তে দোষী সাবস্ত হওয়ায় নীশির বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে। একটা মামলার আসামি কীভাবে তদন্ত কমিটিতে থাকতে পারেন! আমরা এ তদন্ত কমিটিকে প্রত্যাখ্যান করলাম।

সুস্মিতা বাড়ৈ বলেন, এমনিতেই তারা এসে রুমের বিষয়ে কথা বলেন। মারবে, ধরবে, থাপড়াবে এসব করে। আজ ছাত্রলীগের সেক্রেটারি যদি আমার ফোন ধরতেন, তাহলে আমার অভিযোগ জানাতে পারতাম। আমরা ছাত্রলীগের সভাপতি-সাধারণ সম্পাদকের সঙ্গে দেখা করতে গেলে আমাদের বাসায় ঢুকতে দেওয়া হয় না।

আমরা ইডেন কলেজ ছাত্রলীগের সভাপতি তামান্না জেসমিন রিভা ও সাধারণ সম্পাদক রাজিয়া সুলতানাকে আবাঞ্ছিত ঘোষণা করছি। সেই সঙ্গে ছাত্রলীগের এ তদন্ত কমিটিকে আমরা মানি না। রিভা ও রাজিয়াকে বহিষ্কার করে তদন্ত করতে হবে। এসময় ইডেন কলেজ ছাত্রলীগের বর্তমান কমিটি ২০-২৫ জন ছাত্রলীগ নেত্রী উপস্থিত ছিলেন৷

ফের ইডেন কলেজে ছাত্রীদের মধ্যে সংঘর্ষ, আহত ১০ ইডেন কলেজ ছাত্রলীগের দুই গ্রুপের সংঘর্ষে অন্তত দশজন আহত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে। সংবাদ সম্মেলনে কথা বলা নিয়ে দু’গ্রুপের সংঘর্ষ হয়। রবিবার(২৫ সেপ্টেম্বর) বিকেলে ইডেন কলেজের অডিটোরিয়ামের সামনে এ ঘটনা ঘটে।

ইডেন কলেজ ছাত্রলীগের সভাপতি-সাধারণ সম্পাদককে ক্যাম্পাস থেকে বের না করা পর্যন্ত অবস্থান চালিয়ে যাবে বলে জানিয়েছে একটি পক্ষ, আরেকটি পক্ষ শনিবারের (২৪ সেপ্টেম্বর) ঘটনার ভুক্তভোগী পক্ষের অংশকে ক্যাম্পাস থেকে বহিষ্কারে দাবি জানিয়ে অবস্থান করছেন।

এর আগে ইডেন মহিলা কলেজ শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি তামান্না জেসমিন রিভা ও সাধারণ সম্পাদক রাজিয়া সুলতানাকে অবাঞ্চিত ঘোষণা করেছে ছাত্রলীগের একাংশ। রবিবার (২৫ সেপ্টেম্বর) দুপুর ১টায় ইডেন কলেজ ক্যাম্পাসে সংবাদ সম্মেলনে এ ঘোষণা দেন ইডেন কলেজ শাখা ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি সুস্মিতা বাড়ৈ৷

তিনি বলেন, আপনাদের কাছে খবর আছে- ছাত্রলীগের যে তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে, সেখানে বেনজীর হোসেন নীশি আছেন। রোকেয়া হলের এজিএসকে মারধরের ঘটনায় পিবিআইয়ের তদন্তে দোষী সাবস্ত হওয়ায় নীশির বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে। একটা মামলার আসামি কীভাবে তদন্ত কমিটিতে থাকতে পারেন! আমরা এ তদন্ত কমিটিকে প্রত্যাখ্যান করলাম।

সুস্মিতা বাড়ৈ বলেন, এমনিতেই তারা এসে রুমের বিষয়ে কথা বলেন। মারবে, ধরবে, থাপড়াবে এসব করে। আজ ছাত্রলীগের সেক্রেটারি যদি আমার ফোন ধরতেন, তাহলে আমার অভিযোগ জানাতে পারতাম। আমরা ছাত্রলীগের সভাপতি-সাধারণ সম্পাদকের সঙ্গে দেখা করতে গেলে আমাদের বাসায় ঢুকতে দেওয়া হয় না।

আমরা ইডেন কলেজ ছাত্রলীগের সভাপতি তামান্না জেসমিন রিভা ও সাধারণ সম্পাদক রাজিয়া সুলতানাকে আবাঞ্ছিত ঘোষণা করছি। সেই সঙ্গে ছাত্রলীগের এ তদন্ত কমিটিকে আমরা মানি না। রিভা ও রাজিয়াকে বহিষ্কার করে তদন্ত করতে হবে। এসময় ইডেন কলেজ ছাত্রলীগের বর্তমান কমিটি ২০-২৫ জন ছাত্রলীগ নেত্রী উপস্থিত ছিলেন৷

About admin

আমার পোস্ট নিয়ে কোন প্রকার প্রশ্ন বা মতামত থাকলে কমেন্ট করে জানাতে পারেন অথরা মেইল করতে পারেন admin@sottotv.com এই ঠিকানায়।