বাপের বাড়ি যেতে না দেওয়ায় শ্বশুরের …..

এবার ছেলে ও তার স্ত্রী’র ঝ’গ’ড়া থামা’তে গিয়ে মৃ’ত্যু’র মু’খে পড়লেন শ্ব’শুর। রা’গের বশে বৃ”দ্ধ শ্বশুরের অ’ণ্ড’কো’ষ ছিঁ”ড়ে ফে’লার অ’ভি’যোগ উ’ঠল ছেলের বউয়ের বি’রুদ্ধে।

গতকাল মঙ্গলবার ২৭ সেপ্টেম্বর ঘটনা’টি ঘ’টেছে ভা’রতের পূর্ব মেদিনীপুরের ম’য়না থানার নারকেলদহ গ্রামে। অভিযু’ক্ত বধূর নাম শিখা হাইত। ২৭ বছরের ত’রু’ণীকে গ্রেফ’তার করেছে পুলিশ।

এদিকে স্থানীয় সূ’ত্রে খবর, শিখা চেয়েছিলেন পু’জো’র আগে বাপের বাড়ি যেতে। জানান, বাপের বাড়িতে মাংস রান্না হবে, তাই যাবেন। কিন্তু ‘স্ত্রী’কে বাপের বাড়ি যেতে বাধা দেন স্বা’মী বি’শ্বজিৎ।

পরিবর্তে তিনি বাড়িতে মাংস আনেন। তাতে ঝা’মেলা আরও বাড়ে। স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে তী’ব্র বা’দানুবা’দ শুরু হয়। সে সময়ই ছেলে-বউমা’র ঝ”গ’ড়া থামাতে যান বছর ৭৫-এর বৃ’দ্ধ শ্বশু’র।

অভি’যোগ, রা’গের মাথা’য় শ্ব’শুরের ওপর ঝাঁ”পিয়ে পড়েন শিখা। এর পর তাঁর অ’ণ্ডকো”ষ টে’নে ছিঁ”ড়ে ফে”লেন শি”খা। র”ক্তা”ক্ত অবস্থায় মাটিতে লুটি’য়ে পড়েন বৃ”দ্ধ।

আশ’ঙ্কা’জ’নক অবস্থায় তাঁকে তমলুক জেলা সদর হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়। বিশ্বজিতের লিখিত অভি’যো’গের ভি’ত্তিতে ম’য়না থানার পুলিশ তাঁর স্ত্রীকে গ্রেফ’তা’র করেছে।

তাঁর বি’রু’দ্ধে ভা’র’তীয় দ’ণ্ডবি’ধির ৩০৭ ধারায় মাম’লা রু’জু হয়েছে। কিন্তু আচ’মকা কেন এমন হিং”স্র হয়ে উঠলেন গৃহবধূ, কেনই বা তিনি এমন কাণ্ড ঘটালেন? এ নিয়ে তমলুকের প্রখ্যাত চিকিৎসক ডাঃ আলোক পাত্র বলেন,

বর্তমান প্রেক্ষাপটে সমাজের একটা বড় অংশের মানুষ অল্পেতেই প্র’চণ্ড ‘হিং”স্র হয়ে যান। এর অন্ত’র্নি’হিত কারণ লুকিয়ে আছে সমাজের প্রাত্যহিক জীবনের প্রেক্ষাপটে। ছোট পরিবার, একা থাকার অভ্যাস, সমাজমাধ্যমে এক টানা ডু’বে থাকা ইত্যাদি এ জন্য দায়ী।

তাঁর সংযোজন, ওই তরুণী যে ভাবে শ্বশুরের অ’ণ্ড’কো’ষ ছিঁ”ড়ে ফেলেছেন, তা একটি ব্য’তি’ক্র’মী ঘটনা। কী কারণে মহিলা শ্বশু’রের গো’প’না’ঙ্গে হা’ম’লা চা’লা’লেন সে দিকটিও বিশেষ ভাবে দেখা জরুরি।

রা”গের মাথায় অন্য জায়গায় তো হা”মলা করা যেত। যদি দু’র্ঘ’ট’না’জ’নিত কারণে এমনটা ঘটে থাকে তা হলে সেটা সাময়িক রা’গের বহিঃপ্রকাশ। আর যদি মহিলা জেনেবুঝেই এই হা”মলা করেন, তাহলে এর পিছনে শা’রী’রিক স’ম্পর্কের টা’নাপড়েনের বিষয়টিও লু কিয়ে থাকতে পারে। সূত্র: আন’ন্দ’বাজার।

About admin

Check Also

সম্পর্কের পর বাতি জ্বালাতেই দেখেন অন্য কেউ!