আত্মহত্যা ছাড়া আমার আর উপায় থাকবে না : নাসরিন

একটি ফেসবুক পেজের ভিডিওতে এক নারী নিজেকে যৌনকর্মী দাবি করছেন। শুধু তাই নয়, জীবনের গল্প কথা নামের ফেসবুক পেজের ওই ভিডিওতে ঐ নারী দাবি করছেন- এই পথে তাঁকে নিয়ে এসেছেন বাংলা চলচ্চিত্রের পরিচিত মুখ, অভিনেত্রী নাসরিন।

আর এই ভিডিও দেখে অনেকটাই মুষড়ে পড়েছেন অভিনেত্রী। এমন হেনস্থা মানতে পারছেন না তিনি। শনিবার সকালে কালের কণ্ঠের সঙ্গে আলাপকালে নাসরিন কান্না জড়িত কণ্ঠে বলেন, ‘চলচ্চিত্র ইন্ডাস্ট্রিতে একজনও আমার চরিত্রের দিকে আঙুল তলতে পারবে না,

আর এক অপরিচিত মেয়ে মুখ ঢেকে আমার বদনাম দিয়ে দিল। এটা আমি কোনোভাবেই মেনে নিতে পারছি না। এভাবে অপমাণিত হয়ে আমি বাঁচতে পারবো না, এর সমাধান না হলে আমার আত্মহত্যা করা ছাড়া আর উপায় থাকবে না। ’ জানা গেছে,

নাসরিনের স্বামী রামপুরায় থানায় গত ১০ ফেব্রুয়ারি এ বিষয়ে একটি সাধারণ ডায়েরি করেছেন (জিডি) নম্বর- ৫৩৯। কিন্তু সাধারণ ডায়েরি লিপিপদ্ধ করার ১৬ দিন পরেও ওই ফেসবুক পেজে ভিডিওটি দেখা যাচ্ছে। বিষয়টি নিয়ে স্বামী মোস্তাফিজুর রহমানও চিন্তিত।

এমন ঘটনা ক্ষোভ প্রকাশ করে কালের কণ্ঠকে বলেন, ‘নাসরিনের ক্যারিয়ারের ২৮ বছরে তার চরিত্র নিয়ে কেউ একটি কথা বলতে পারেনি। তার সবচেয়ে বড় শক্তির জায়গাই হচ্ছে তার চরিত্র, সেখানে একজন অপরিচিত নারী উদ্দেশ্যপ্রণোদিতভাবে কালিমা লেপন করার চেষ্টা করছে।

আমি আইনের দ্বারস্থ হয়েছে। রামপুরা থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করেছি। সেটা সাইবার ক্রাইম ইউনিটে স্থানান্তর করা হয়েছে। এখন আমরা এই বিচারের অপেক্ষায় আছি। ’ কী কারণে এমন সাইবার আক্রমণ হতে পারে, প্রশ্নের জবাবে নাসরিন বলেন, ‘অনেক কষ্ট আর সংগ্রাম করে আমি আজ এই অবস্থান তৈরি করেছি।

চলচ্চিত্র জগতের যারাই আমাকে চেনেন তারা সবাই জানেন আমি কেমন মানুষ। কারো উপকার ছাড়া কখনই কারো ক্ষতি করার চেষ্টা করিনি। ’ নাসরিনের দাবি, চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির নির্বাচন বা ব্যক্তিগত কোনও আক্রোশ থেকে আমাকে কেউ হয়তো এমনটা করছে।

About admin

আমার পোস্ট নিয়ে কোন প্রকার প্রশ্ন বা মতামত থাকলে কমেন্ট করে জানাতে পারেন অথরা মেইল করতে পারেন admin@sottotv.com এই ঠিকানায়।