ফুটবলারদের ব্যাগের তালা ভাঙা, কৃষ্ণা রানীর ব্যাগ থেকে আড়াই লাখ টাকা চুরি

সদ্যই নেপাল থেকে সাফ চ্যাম্পিয়ন হয়ে ফেরা বাংলাদেশ জাতীয় নারী ফুটবল দলের কয়েকজন ফুটবলারের ব্যাগ থেকে চুরির ঘটনা ঘটেছে। ফাইনালে দলের হয়ে গোল করা কৃষ্ণা রানী সরকারের ব্যাগ থেকে প্রায় আড়াই লাখ টাকা চুরি হয়েছে। বিমানবন্দর থেকে শোভাযাত্রায় এই ঘটনা ঘটেছে। গণমাধ্যমকে এই ফুটবলার নিজেই বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

তিনি বলেন, যেহেতু দেশের আসার পর আমাদের জন্য বড় ধরনের আয়োজন ছিল, এজন্য আমরা আমদের হ্যান্ড ব্যাগটাও লাগেজের ভেতরে রেখেছিলাম। পরে যখন লাগেজ খুলি তখন দেখি ভেতরের ছোট ব্যাগের চেইন খোলা। ব্যাগের ভেতরে আমার ৯০০ ডলার শামসুন্নাহার সিনিয়রের ৪০০ ডলারসহ আরও অনেকের কিছু ডলার ছিল। বাংলাদেশি টাকায় যার মূল্য আড়াই লাখ টাকার মতো। সেগুলোর কিছুই নেই ব্যাগের ভেতর। শুধু তারই টাকা চুরি যায়নি। আরও বেশ কিছু ফুটবলারের ব্যাগের তালা ভাঙ্গা ছিল বলেও জানা গেছে। তবে তাদের কি কি চুরি চুরি হয়েছে সে বিষয়ে এখনও জানা যায়নি।

নারী ফুটবলারদের নিয়ে যা বললেন মিজানুর রহমান আজহারী: বাংলাদেশের ইতিহাসে প্রথমবারের মতো আন্তর্জাতিক শিরোপা জিতেছে নারী ফুটবল দল। সাফ চ্যাম্পিয়নশিপের ফাইনালে নেপালকে হারিয়ে জয়োল্লাসে মেতেছে সাবিনা-মারিয়ারা। এই আনন্দে ভাসছে দেশের ফুটবলাঙ্গন। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে চলছে বন্দনা। নারীদের সাফ চ্যাম্পিয়ন ও ফেসবুকে উৎফুল্লদের নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে একটি দীর্ঘ স্ট্যাটাস দিয়েছেন, ইসলামিক বক্তা মিজানুর রহমান আজহারী।

নিজের ফেসবুকে তিনি লিখেছেন, ‘সাফ উইমেন চ্যাম্পিয়নশিপে বাংলাদেশের নারী ফুটবল দলের অর্জনকে কেন্দ্র করে দেশের আম জনতা যখন বিজয়োল্লাসে ব্যস্ত, ঠিক একই ঘটনাকে পুঁজি করে কিছু ধূর্ত লোক ইসলাম বিদ্বেষের নগ্ন উন্মাদনায় ব্যস্ত। দেশ ও দশের কাজে যাদের সিকিভাগ অবদান নেই।

আরে ভাই, সেলিব্রেট করার একটা উপলক্ষ এসেছে তো সেলিব্রেট করুন। এ বিজয়কে ইসলামের বিরুদ্ধে দাঁড় করাচ্ছেন কেন? খেলোয়াড় মেয়েগুলো তো স্রষ্টার প্রতি কৃতজ্ঞতা স্বরুপ মাঠেই সিজদায় লুটিয়ে পড়তে দেখলাম। তাদেরও তো কোন এন্টি ইসলাম এটিচিউড নেই। কিন্তু কিছু উজবুক রীতিমত ব্যাপারটাকে লেজেগোবরে করে ফেলেছে।

একটা পজিটিভ বিষয়কে ভিন্ন আঙ্গিকে ম্যানুপুলেট করে তাদের এই বস্তা পঁচা সস্তা ইসলাম বিদ্বেষের কূটকৌশল ইসলামপন্থীরা বহু আগে থেকেই অবগত। দেশের আম জনতাও অবগত যে- দেশের বিভিন্ন অর্জন ও সংস্কৃতিকে নানান চেতনা ও অপসংস্কৃতির রঙ মাখিয়ে দেশের ইসলামপন্থীদেরকে কীভাবে বারবার কোণঠাসা করে রাখার অপপ্রয়াস চালানো হয়।

ইনশাআল্লাহ, ইসলাম প্রিয় এই মুসলিম দেশে ইসলাম বিদ্বেষীদের রঙ তুলির আচড় আর গোবর ভরা মাথার ফাঁকা বুলির ফাঁপর, কোনোটাই জন-মানুষের মনে ইসলাম ও আলেম বিদ্বেষের বিষবাষ্প ঢোকাতে পারবে না। বরং তাদের কূটকৌশল বুমেরাং হয়ে তাদের অসল চেহারাটাই প্রকাশ করে দেবে।’

মঞ্চে সবটা জায়গা নিলেন সালাউদ্দিনরা, কোথাও নেই চ্যাম্পিয়ন মেয়েরা:  যাদের নিয়ে এই আয়োজন, তাদেরই জায়গা হলো না মঞ্চে। বাংলাদেশ নারী ফুটবল দলের সাফ চ্যাম্পিয়ন হওয়ার পরে সংবাদ সম্মেলনে দেখা মিললো এমনই দৃশ্যর। যেখানে মঞ্চজুড়েই ছিল বাফুফে সভাপতি, সিনিয়র সহ-সভাপতি ও সহ-সভাপতিদের দাপট। কোথাও দেখা মিললো না দেশের জন্য গৌরব বয়ে আনা সানজিদা-ঋতুপর্নাদের।

কাঠমান্ডু থেকে দেড় ঘণ্টার বিমান যাত্রা শেষে দুপুর ১.৪৫ মিনিটে দেশে পৌঁছান সাফজয়ী নারী দলের সদস্যরা। উপচে পড়া ভিড়ের কারণে বিমানবন্দরে বাতিল করা হয় ফুটবলারদের সংবাদ সম্মেলন। বিকেল ৩টার দিকে ছাদখোলা বাসে করে বাফুফের পথে রওনা হোন ফুটবলাররা। চার ঘণ্টার যাত্রা শেষে সন্ধ্যা রাতে আয়োজন করা হয় সংবাদ সম্মেলনের।

শিরোপাজয়ী নারীদের কথা শোনার অপেক্ষায় দীর্ঘ সময় বাফুফে ভবনে অপেক্ষা করেছেন সংবাদ কর্মীরা। অবাক করার মতো বিষয় হচ্ছে, রাত ৮.৩০ মিনিটে শুরু হওয়া সেই সংবাদ সম্মেলনে ফুটবলার-কোচ কথা বলার সুযোগ পেলেন কম। বসার মতো সুযোগ পেলেন এর চেয়েও কম। সংবাদ সম্মেলনের অধিকাংশ সময় দাঁড়িয়ে রইলেন এক কোণে। যাদের অর্জন সেই ফুটবলারদের গুণকীর্তন করতে গিয়ে সময়ের অধিকাংশটাই নষ্ট করলেন কর্মকর্তারা।

এ ঘটনায় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ব্যাপক সমালোচনার সৃষ্টি হয়েছে। বাফুফের কর্মকর্তাদের এই দায়িত্বজ্ঞানহীন কর্মকাণ্ডের প্রতিবাদ জানিয়েছেন তারা। সকলেই বলছেন, অন্তত চ্যাম্পিয়ন দলের অধিনায়ক ও কোচ মঞ্চে সামনের দিকে একটা করে আসন পেতেই পারতেন। কিন্তু তাদেরকেও কিনা দাড়িয়ে থাকতে হলো এক কোনে।

About admin

Check Also

ব্রাজিলের জন্য সুখবর, শীঘ্রই ফিরছেন নেইমার, ফোলা পায়ের ছবি শেয়ার করলেন নেইমার

এবার জয় দিয়ে ব্রাজিলের বিশ্বকাপ মিশন শুরু হলেও নেইমারের চোট দুশ্চিন্তায় ফেলেছিল দলকে। আর তার …