চট্টগ্রাম ভেটেরিনারি এন্ড এনিমেল সাইন্স বিশ্ববিদ্যালয় নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি ২০২১

চট্টগ্রাম ভেটেরিনারি এন্ড এনিমেল সাইন্স বিশ্ববিদ্যালয় নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি।চট্টগ্রাম ভেটেরিনারি ও এনিম্যাল সাইন্সেস বিশ্ববিদ্যালয়  বাংলাদেশের একটি বিশেষায়িত সরকারি বিশ্ববিদ্যালয়। এটি দেশের একমাত্র ভেটেরিনারি বিশ্ববিদ্যালয়। অন্যান্য কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের মতো এই বিশ্ববিদ্যালয়েও অনুষদের ওপর শিক্ষার্থীদের ডিগ্রি প্রদান করা হয়।সম্প্রতি চট্টগ্রাম ভেটেরিনারি এন্ড এনিমেল সাইন্স বিশ্ববিদ্যালয় চাকরি বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করেছে।আগ্রহী ওযোগ্য ব্যক্তিদের আবেদন করার জন্য আহব্বান করা হচ্ছে।

১।পদের নামঃ সহকারী লাইব্রেরিয়ান

  • পদের সংখ্যাঃ ০১
  • শিক্ষাগত যোগ্যতাঃ প্রার্থীকে স্বীকৃত প্রতিষ্ঠান থেকে লাইব্রেরী সাইন্স বা ম্যানেজমেন্ট থেকে স্নাতক বা সমমানের ডিগ্রি
  • বেতনঃ ২৯,০০০-৬৩,৪১০

২।পদের নামঃ সহকারী পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক

  • পদের সংখ্যাঃ ০২
  • শিক্ষাগত যোগ্যতাঃ কোনো স্বীকৃত প্রতিষ্ঠান থেকে স্নাতোকোতর বা সমমানের ডিগ্রি
  • বেতনঃ ২৯,০০০-৬৩,৪১০

৩।পদের নামঃ একাউন্টস অফিসার

  • পদের সংখ্যাঃ ০৩
  • শিক্ষাগত যোগ্যতাঃ কোনো স্বীকৃত প্রতিষ্ঠান থেকে বাণিজ্যে স্নাতোকোত্তর বা সমমান পাশ
  • বেতনঃ ২২,০০০-৫৩,০৬০

৪।পদের নামঃ হার্ডওয়্যার টেকনিশিয়ান

  • পদের সংখ্যাঃ ০২
  • শিক্ষাগত যোগ্যতাঃ এইচএসসি বা সমমান পাশ
  • বেতনঃ ১১,০০০-২৬,৫৯০

সরকারি বেসরকারি সব ধরনের চাকরির খবর সবার আগে পাবেন এই ওয়েবসাইটে sottotv.com। তাই যেকোনো ধরনের চাকরির খবর পেতে ভিজিট করুন আমাদের ওয়েবসাইটে । চট্টগ্রাম ভেটেরিনারি এন্ড এনিমেল সাইন্স বিশ্ববিদ্যালয় নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি সম্পর্কিত যাবতীয় তথ্য দেখতে নিচের ছবিটি লক্ষ্য করুন -বিস্তারিত তথ্য দেখুন নিচের ছবিতে।

চট্টগ্রাম ভেটেরিনারি এন্ড এনিমেল সাইন্স বিশ্ববিদ্যালয় নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি ২০২১

Application Deadline: 12 April 2021

আবেদন করতে ভিজিট করুনঃ https://cvasu.ac.bd/

 

জব সার্কুলারের অন্যান্য তথ্য

প্রতিষ্ঠানের নামঃঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়
চাকরির ধরণঃস্থায়ী – পূর্ণকালীন চাকরি
চাকরির ক্যাটাগরিঃসরকারি চাকরি
আবেদনকারীর লিঙ্গঃ পুরুষ /মহিলা উভয়ই আবেদন করতে পারবেন।
আবেদনের বয়স সীমাঃবিস্তারিত বিজ্ঞপ্তি থেকে দেখে নিন
অন্যান্য সুযোগ সুবিধাঃপ্রতিষ্ঠানের বিধি মোতাবেক
প্রতিষ্ঠানের ধরণঃসরকারি প্রতিষ্ঠান
অফিসিয়াল ওয়েবসাইটঃhttps://cvasu.ac.bd/

১৯৯০ এর পর থেকে, প্রাণী শিল্পের আকার এবং প্রকৃতি দ্রুত পরিবর্তন হচ্ছে। বাণিজ্যিক দুগ্ধ এবং হাঁস-মুরগির চাষ স্থানীয় এবং বিদেশী বিনিয়োগের জন্য অন্যতম সম্ভাব্য ক্ষেত্র হিসাবে স্বীকৃতি দেওয়া শুরু করে। খাদ্য সুরক্ষা এবং পুষ্টির ক্ষেত্রে অবদানকারী হিসাবে প্রাণিসম্পদ এবং হাঁস-মুরগি নীতি নির্ধারক এবং উন্নয়ন অংশীদারদের জন্য অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ এজেন্ডা হয়ে দাঁড়িয়েছে। দ্রুত নগরায়ণ এবং নগরবাসীর মধ্যে খাদ্যাভাসের পরিবর্তন ত্বরান্বিত করা হয়েছে খাদ্য শিক্ষার সংস্কার এবং ক্রমবর্ধমান প্রযুক্তির বিকাশের প্রয়োজনীয়তা এবং পশুর স্বাস্থ্য, খাদ্য প্রক্রিয়াকরণ এবং বিপণনে আরও দক্ষ জনশক্তি বর্ধনের সাথে খাদ্য শিল্পে পরিবর্তন আনা হয়েছে।

অতীতে এবং বর্তমানে বাংলাদেশের প্রয়োজন কৃষকের পশুর উত্পাদনশীলতা বৃদ্ধি করা এবং পশুচিকিত্সক স্নাতকদের সন্ধানের উদ্দেশ্যটি এখনও বৃহত্তর ক্ষুদ্রাকারী প্রাণিসম্পদ কৃষকদের প্রয়োজনের দ্বারা নির্ধারিত হয়েছে। তবে, বাংলাদেশে ভেটেরিনারি শিক্ষার দ্বিতীয় পরিবর্তনের সময় এই বাস্তবতাকে স্পষ্টতই উপেক্ষা করা হয়েছিল।

About admin

Check Also

মাত্র দুই দিনেই দারুন কায়দায় ঘর থেকে দূর করুন ইঁদুর

ঘরে একটি ইঁদুর থাকলও তার থেকে কিছুদিনের ম’ধ্যেই বেড়ে যায় আরো কয়েকটি। এভাবেই একসময় পুরো …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *