আর্জেন্টিনাই হাসবে শেষ হাসি: ভবিষ্যদ্বাণী ঈগলের

চলতি কাতার বিশ্বকাপের স্বপ্নের ফাইনালে আজ মুখোমুখি হবে আর্জেন্টিনা এবং ফ্রান্স। আজ রবিবার বাংলাদেশ সময় রাত ৯ টায় কাতারের লুসাইল স্টাডিয়ামে শুরু হবে দুই দলের বিশ্বজয়ের মিশন। এবারের ফাইনালে গুরুত্বপূর্ণ একটি লক্ষ্য নিয়ে মাঠে নামবে ফ্রান্স এবং আর্জেন্টিনা।

এর আগে গত ২০১০ বিশ্বকাপে সবাইকে চমকে দিয়েছিল অক্টোপাস পল। বিশ্বকাপে নিক্ষুত সব ভবিষ্যদ্বাণী করেছিল এই প্রানীটি। বিশ্বকাপের ফাইনালে বিজয়ীর নামটিও বলেছিল আগেই। এরপর থেকেই বিশ্বকাপে ম্যাচের পূর্বে ভবিষ্যদ্বাণী বেশ জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে। তবে কখনওই অক্টোপাস পলের মত আর কেউই নিক্ষুত ভবিষ্যদ্বাণী করতে পারেনি।

কিন্তু তাতে কি? থেমে নেই এবারও সেই ভবিষ্যদ্বাণী করা। ফাইনালের আগে তাই ভবিষ্যদ্বাণী চলছেই প্রানীদের নিয়ে। তেমনি একটি প্রানী হচ্ছে ঈগল কিনা ভবিষ্যদ্বাণী করেছে ম্যাচ নিয়ে। চলতি কাতার বিশ্বকাপের এবারের আসরে ফাইনালে উঠেছে ল্যাতিন আমেরিকার জায়ান্ট আর্জেন্টিনা এবং ইউরোপিয়ান জায়ান্ট ফ্রান্স। ঈদলকে দিয়ে করা এই ভবিষ্যদ্বাণী দেখে আর্জেন্টাইনরা মুচকি হাসতে পারে। কেননা, তার ভবিষ্যদ্বাণী সঠিক হলে আর্জেন্টিনা হাসবে শেষ হাসি।

এদিকে বিশ্বকাপে এখন পর্যন্ত ফ্রান্স ও আর্জেন্টিনার দেখা হয়েছে মোট তিন বার। এর মধ্যে আর্জেন্টিনার দুই জয়ের বিপরীতে ফরাসিরা জিতেছে একবার। সেটাও গত রাশিয়া বিশ্বকাপের রাউন্ড অব সিক্সটিনের ম্যাচে। হাড্ডাহাড্ডি লড়াইয়ের ওই ম্যাচে ৩-৪ গোলে হেরেছিল আর্জেন্টিনা। মেসিদের হারিয়ে ওই আসরের শিরোপা ঘরে তুলে নেয় ফরাসিরা।

এদিকে বিশ্বকাপে দুদলের প্রথম দেখা হয় ১৯৩০ সালে বিশ্ব ফুটবলের প্রথম আসরে। আর দ্বিতীয় দেখা ১৯৭৮ সালের বিশ্বকাপে। দুই আসরেই আলবিসেলেস্তেদের বিপক্ষে ধরাশায়ী হয়েছিল ফরাসিরা। সবমিলিয়ে দুদলের ১২ দেখায় আর্জেন্টিনা জিতেছে ৬ ম্যাচ। আর ফ্রান্স জিতেছে ৩ ম্যাচ। বাকি ৩ ম্যাচ ড্রয়ের খাতায় যোগ হয়েছে।

বিশ্বকাপ ফাইনাল, পরিসংখ্যানে এগিয়ে আর্জেন্টিনা

প্রায় এক মাসের লড়াইয়ের পর দক্ষিণ আমেরিকা থেকে আর্জেন্টিনা এবং ইউরোপে থেকে ফ্রান্স উঠেছে কাতার বিশ্বকাপের ফাইনালে। আজ রবিবার ১৮ ডিসেম্বর লুসাইল স্টেডিয়ামে মুখোমুখি হবে এ দুই দল। তার আগে দেখে নেয়া যাক আর্জেন্টিনা-ফ্রান্স লড়াইয়ে এগিয়ে কোন দল। এদিকে গ্রুপ পর্ব, শেষ ষোলো, কোয়ার্টার ফাইনাল এবং সেমিফাইনালের বাধা পেরিয়ে ফাইনালের টিকিট কেটেছে বর্তমান চ্যাম্পিয়ন ফ্রান্স ও বর্তমান কোপা আমেরিকান চ্যাম্পিয়ন্স আর্জেন্টিনা।

গ্রুপ পর্বে ফ্রান্সের যাত্রাটা সহজ হলেও, আর্জেন্টিনা তাদের প্রথম ম্যাচেই সৌদি আরবের কাছে হেরে চাপে পড়েছিল। কিন্তু এরপর কোনো ম্যাচে না হেরে ফাইনালের টিকিট কাটে মেসির দল। গ্রুপ পর্বের প্রথম দুই ম্যাচে জিতে শেষ ষোলোর টিকিট কাটার পর শেষ ম্যাচে তিউনিসিয়ার কাছে হেরে যায় ফ্রান্স।

কিন্তু শেষ ষোলোতে প্রথমে পোল্যান্ড, এরপর কোয়ার্টার ফাইনালে ইংল্যান্ড এবং সেমিফাইনালে মরক্কোর বিপক্ষে কষ্টার্জিত জয়ে ফাইনালের টিকিট কাটে গতবারের চ্যাম্পিয়নরা। কিন্তু দুই ফাইনালিস্ট মুখোমুখি হওয়ার আগে কে এগিয়ে তা জেনে নেয়া যাক।

বিশ্বকাপে এখন পর্যন্ত ফ্রান্স ও আর্জেন্টিনার দেখা হয়েছে মোট তিন বার। এর মধ্যে আর্জেন্টিনার দুই জয়ের বিপরীতে ফরাসিরা জিতেছে একবার। সেটাও গত রাশিয়া বিশ্বকাপের রাউন্ড অব সিক্সটিনের ম্যাচে। হাড্ডাহাড্ডি লড়াইয়ের ওই ম্যাচে ৩-৪ গোলে হেরেছিল আর্জেন্টিনা। মেসিদের হারিয়ে ওই আসরের শিরোপা ঘরে তুলে নেয় ফরাসিরা।

এদিকে বিশ্বকাপে দুদলের প্রথম দেখা হয় ১৯৩০ সালে বিশ্ব ফুটবলের প্রথম আসরে। আর দ্বিতীয় দেখা ১৯৭৮ সালের বিশ্বকাপে। দুই আসরেই আলবিসেলেস্তেদের বিপক্ষে ধরাশায়ী হয়েছিল ফরাসিরা। সবমিলিয়ে দুদলের ১২ দেখায় আর্জেন্টিনা জিতেছে ৬ ম্যাচ। আর ফ্রান্স জিতেছে ৩ ম্যাচ। বাকি ৩ ম্যাচ ড্রয়ের খাতায় যোগ হয়েছে।